ছেলেদের ইসলামিক নাম | ৪৫০+ ছেলেদের ইসলামিক নাম অর্থসহ

BanglaTeach
E-Haq
Digital Marketer at- BanglaTeach

E-Haq is the founder of BanglaTeach. He is expertise on Education, Health, Financial, Banking,...

Sharing is caring!

ছেলেদের ইসলামিক নাম
ছেলেদের ইসলামিক নাম

ছেলেদের ইসলামিক নাম রাখা প্রত্যেকটা মুসলিম পরিবারের উচিত আর সেটা অবশ্যই অর্থবহ হতে হবে। একটি মুসলিম পরিবারে যখন সন্তান জন্মগ্রহণ করে, তখন সেই সন্তানের পিতা-মাতার উপর প্রধান দায়িত্ব তৈরি একটি সুন্দর ইসলামিক নাম রাখা। আর সন্তান ছেলে কিংবা মেয়ে হোক, অবশ্যই নাম রাখার ক্ষেত্রে ইসলামিক যে কয়েকটি বিষয় রয়েছে, সেগুলোকে মান্য করে একটি নাম সিলেক্ট করতে হবে। অন্যথায় ইসলামিক নামের বদলে একটি নেতিবাচক নাম সিলেক্ট করার সম্ভাবনাই বেশি থাকে। ( মেয়েদের ইসলামিক নাম সম্পর্কে জানুন )

যাইহোক, নাম রাখার ক্ষেত্রে যে সমস্ত বিষয়গুলোকে ফোকাসে রেখেই একটি নাম সিলেক্ট করা উচিত, আজকের আর্টিকেলে ছেলেদের জন্য সেই সকল নামগুলোই তুলে ধরা হয়েছে। যখন একজন ব্যক্তি তাঁর সদ্য জন্ম নেওয়া ছেলে সন্তানের জন্য নাম রাখতে ইচ্ছা পোষণ করে থাকে, ঠিক তখন তাকে বেশ অনেকগুলো বিষয় মান্য করতে হয়। এই ক্ষেত্রে অন্তত ৩টি বিষয়কে লক্ষ্য রাখতে হয়। আর সেগুলো হলো- সিলেক্ট করা নামটি ইসলামিক নাম কি-না, নামের অর্থটি ইতিবাচক কি-না এবং সর্বপরি নামের সাথে শিরকের কোনো রকম সম্পর্ক আছে কি-না। যদি উক্ত বিষয়গুলোর সাথে একটি নাম খাপ-খাইয়ে যায়, তাহলে কোনো রকম দ্ধিধা ছাড়া একজন ব্যক্তি তাঁর ছেলে সন্তানের জন্য সুন্দর একটি ইসলামিক নাম চয়েজ করতে সক্ষম হবেন। যাইহোক, আলোচনা বিলম্ব না করে চলুন ছেলেদের ইসলামিক নাম সম্পর্কে জানা যাক।  ( মেয়েদের আধুনিক নাম সহ পাকিস্তানি মেয়েদের নাম সম্পর্কে পড়ুন )

ছেলেদের ইসলামিক নাম অর্থসহ

ছেলেদের ইসলামিক নাম অর্থসহ
ছেলেদের ইসলামিক নাম অর্থসহ

নাম রাখার ক্ষেত্রে ছেলেদের ইসলামিক নাম অর্থসহ জানা বেশ গুরুত্বপূর্ণ। অর্থাৎ যখন কোনো একটি নাম চয়েজ করবেন হোক সেটা মেয়ে কিংবা ছেলেদের ইসলামিক নাম, অবশ্যই নামের অর্থের দিকে বিশেষ ভাবে খেয়াল করবেন। অবশ্যই এই ক্ষেত্রে নামের অর্থটি যাতে ইতিবাচক অর্থবহ হয়, সেদিকে নজর রাখতে হবে। অন্যথায় একটি ভুল নাম সিলেক্ট করার সম্ভবনা থেকে যায়। আর এই উল্লেখিত বিষয়গুলোকে মেইন্টেন করে একজন গার্ডিয়ানের পক্ষে বেশ কষ্টদায়ক একটি ইসলামিক নাম সিলেক্ট করা। আর তাই আজকের আর্টিকেলে আমরা এমন অনেকগুলো ছেলেদের ইসলামিক নাম অর্থসহ তুলে ধরা হয়েছে। অর্থাৎ উপরে যে তিনটি বিষয়কে উল্লেখ করা হয়েছে, ঠিক ঐ তিনটি বিষয়কেই ফোকসে রেখে নিম্নে উল্লেখিত ছেলেদের ইসলামিক নামগুলো তুলে ধরা হয়েছে। ছেলেদের ইসলামিক নামগুলো হলো-

  • ফাতহ = Fath = বিজয়
  • ফাখের = Fakher = গর্ব্বোধকারী, উন্নতমানের
  • ফারেগ = Fareg = অবসর
  • ফারহান = Farhan = প্রফুল্ল
  • ফাওয়ায = Fawyaj = অত্যন্ত কামিয়াব
  • ফাত্তাহ = Fatta = কৃতকার্য, উপকারি
  • ফিদা = Fida = উৎসর্গ
  • ফারহাত = Farhat =  আনন্দ, উল্লাস
  • ফুরকান = Furkan =   সত্য মিথ্যার পার্থক্যকারী
  • জহীরুল ইসলাম = Jahirul Islam = ইসলামের পৃষ্ঠপোষক
  • জহুরুল ইসলাম  = Jahurul Islam = ইসলামের প্রকাশ
  • জোহা  = Joha = সকালের উজ্জ্বলতা
  • আব্দুল জব্বার = Abdul jabbar = মহাপ্রতাপশালী আল্লাহর বান্দা
  • জাকওয়ান = Zakwan = বুদ্ধিমান,বিচক্ষন,মেধাবী
  • জাকিউদ্দীন = Zakiuddin = ধর্মের বিচক্ষণ
  • জাকিউল ইসলাম = Zakiul Islam = ইসলামের বিচক্ষণ ব্যক্তি
  • জাকির = Zakir = অধিক স্মরনশক্তি সম্পন্ন
  • জাকির = Zakir = সম্বরণকার, জিকিরকারি
  • রকীক =Rokik = কোমল / সদয়
  • রকীন = Rokin = সুদৃঢ় / মজবুত
  • রকীব = Rokib = পর্যবেক্ষক / তত্ত্বাবধায়ক
  • ওয়াকী =  Waqie  = শক্ত
  • ওয়ালীদ  = Walid  = শিশু
  • ওয়াক্কাস  = Waccas  = সাহাবীর নাম
  • ওয়াইল  = Wail  = প্রবল বারিবর্ষণ
  • ওয়াসিম ওয়াদূদ =  Wasim Wadud  = সুদর্শন বন্ধু
  • নুহাস = Nuhas = কোনো কিছুর সারাংশ
  • মকবুল হোসাইন = Mokbul Hossain = সবার দ্ধারা স্বীকৃত সুন্দর।
  • মাহদী হাসান = Mahdi Hassan = সত্য, কল্যাণ ও সুন্দর পথপ্রাপ্ত।
  • মুস্তাকিম বিল্লাহ = Mustakim Billah = আল্লাহকে পাওয়ার সহজ-সরল পথ।
  • মুতিউর রহমান = Motur Rahman = আল্লাহর অনুগত।
  • মিরাজুল হক = Mirazul Haque = সর্ব-সত্যের সিঁড়ি।
  • মুবারক করিম = Mubark Karim = অনুগ্রহ পরায়ন।
  • মুতাসিম ফুয়াদ = Mutasim Fuyad = দৃঢ়ভাবে সংকল্পকারী হৃদয়।
  • মাহির ফয়সাল = Mahir Faysal = অভিজ্ঞ বিচারক।
  • মানহাজুরুল হাসান = Manhajurul Hassan = সুন্দর।
  • মুনযিরুল হক = Munjirul Haque = সত্যের প্রতি ভীতিপ্রদর্শন কারী।
  • মিনহাজুদ্দীন = Minhajuddin = ইসলামের প্রশস্ত রাস্তা।
  • মুশতাক ফুয়াদ = Mustaque Fuyad = অতি আগ্রহী হৃদয়।
  • মুরাদুল ইসলাম = Muradul Islam = ইসলামের জন্য বাসনা অথবা আকঙ্খা।
  • মুনাওয়ার মিসবাহ = Munaour Misbah = অতি প্রজ্জ্বলিত বাতি বা প্রদীপ।
  • সারিম শাদমান = ‍Sharim Shadman = স্বাস্থ্যবান।
  • সাকীব = Shakib = উজ্জ্বল।
  • সদরুদ্দীন = Sodroddin = দ্বীনের জ্ঞাত।
  • সিরাজুল ইসলাম = Shirajul Islam = ইসলামের বিশিষ্ট ব্যক্তি।
  • সিরাজুল হক = Shirajul Haque = প্রকৃত আলোকবর্তিকা।
  • সামছুদ্দীন = Shamsuddin = দ্বীনের উচ্চতর।
  • সফিকুল হক = Shofiqule Haque = প্রকৃত গোলম।
  • সাদিক = Sadiq = সত্যবান।
  • সাদিকুল হক = Sadiqul Haque = যথার্থ প্রিয়।
  • টাওহিদ = Tawhid
  • টিরমিজি = Tirmiji
  • ওয়ারেস  = Wares  = উত্তরাধিকারী
  • ওয়াসে =  Wase  = প্রশস্ত
  • ওয়াসেল =  Wasel  = সাক্ষাৎকারী
  • ওয়াসেফ =  Wasef  = গুণবর্ণনাকারী
  • ওয়ায়েয =  Waez  = উপদেশ দানকারী
  • ওয়াফী =  Wafi  = পূরণকারী
  • ওয়াকেফ =  Waqef  = অবগত
  • ওয়ামেক =  Wameq =  বন্ধুত্ব স্থাপন কারী
  • ওয়াহেব  = Waheb =  দাতা
  • ওয়াজিহ  = Wajih =  সুন্দর
  • ওয়াজাহাত =  Wajahat  = সম্মান
  • ওয়াদী =  Wadi  = শান্ত বা নম্র
  • ওয়াদীআহ =  Wadiah =  আমানত জমাকৃত অর্থ
  • ওয়াযীর =  Wazir  = মন্ত্রী
  • ওয়াসসাফ =  Wassaf =  গুণবর্ণনাকারী
  • টিরাক = Tirak
  • সাদ্দাম হোসাইন = Saddam Hossain = সুন্দর বন্ধু।
  • সাদেকুর রহমান = Sadikur Rahman = দয়াময়ের সত্য বানী।
  • সাজিদ = Shajid = সিজদাকারী।
  • সামীর = Samir = উপকারী বা ভালো সঙ্গী।
  • সাহিল = Shahil = উপকূল অথবা নদীর তীর।
  • সারিম = Sharim = সাহসী বা তীক্ষ্ম।
  • সালমান = Salman = নিরাপদ বা আধ্যত্মিক নাম।
  • সফিয়ান = Sofiyan = দ্রুত চলমান অথবা হালকা।
  • সাদ = Sad = অভিনন্দন বা শুভকামনা।
  • সায়ান = Sayan = মূল্যবান বা যোগ্য।
  • সিরাজ = Shiraj = প্রদীপ বা বাতি।
  • সেলিম = Selim = নিরাপদ বা অক্ষত।
  • সুজন = Shujon = জ্ঞানী।
  •  শরীয়াতুল্লাহ = Sariyatullah = আল্লাহর মনোনিত বিধান।
  • শহীদুর রহমান = Shidur Rahman = করুণাময় আল্লাহ তা’আলা সাক্ষী।
  • শহীদুল আলম = Shaidul Alam = বিশ্ব-জগতের সাক্ষী।
  • শহীদুল ইসলাম = Shaidul Islam = দ্বীন ইসলামের জন্য শহীদ।
  • শাহীদুল হক = = সত্যের জন্য যে শহীদ হয়।
  • শামছুছ ছালেহীন = Samsus Salehin = সৎ লোকদের একত্রিত সূর্য।
  • শফিউর রহমান = Safiur Rahman = আল্লাহর কাছে সুপারিশকারী।
  • শফিউল আলম = Safiul Alam = বিশ্ব জগতের সুপারিশকারী।
  • শফিকুর রহমান = Safikur Rahman = আল্লাহর সদয় বান্দা।
  • শামছুজ্জোহা = Shamsujjoha = ভোর বা সকালের সূর্য।
  • শামছুদ্দোহা = Shamsudduha = ভোর কিংবা সকাল বেলার সূর্য।

উপরে আমরা বেশ অনেকগুলো ছেলেদের ইসলামিক নাম জানলাম এবং একই সাথে নামের অর্থ সহ বানানও জানলাম। যখন আপনি আপনার ছেলে সন্তানের জন্য একটি নাম চয়েজ করতে চাইবেন,তখন অবশ্যই আপনার উচিত একজন মুসলিম হিসেবে আপনার সন্তানের জন্য একটি ইসলামিক নাম রাখা। এতে করে প্রথম অবস্থায় আপনার প্রাথমিক কর্তব্য সঠিক ভাবে পালন হবে সন্তানের প্রতি। চলুন নিম্নে দেওয়া আরো ছেলেদের ইসলামিক নামগুলো সম্পর্কে জানা যাক।

ছেলেদের ইসলামিক সুন্দর নামের তালিকা অর্থসহ

ছেলেদের ইসলামিক সুন্দর নামের তালিকা অর্থসহ যে নামগুলো এখানে তুলে ধরা হয়েছে, কোনো রকম দ্ধিধা ছাড়াই আপনারা এসব নাম ছেলেদের নাম রাখার ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারেন। যদিও অনেক গার্ডিয়ান তথা মা-বাবা তাদের সন্তানের জন্য একটি ইসলামিক নাম খুঁজাকে বেশ কষ্টসাধ্য মনে করেন, তবে ধর্মীয় ভাবে সামান্য জ্ঞান থাকলে উক্ত কাজটি তাঁরা খুব সহজেই করতে পারে। নাম চয়েজের বিষয়গুলোকে কেন্দ্র করেই একজন ব্যক্তি তার ছেলে সন্তানের বা ছেলে বাবুর জন্য ইসলামিক নাম পিক করতে সক্ষম হবেন।

  • ফাসাহাত = Fasahat =   বিশুদ্ধ ভাষণ, বাক চাতুর্থ
  • ফাসীহ = Fasih =   বিশুদ্ধভাষী, বাকপটু
  • ফাদল (ফযলু) = Fadol =   অনুগ্রহ
  • ফাতীন = Fatin =   বুদ্ধিমান, সুচতুর
  • ফুদায়ল (ফুদায়ল) = Fudayal =   সাহাবীর নাম, জ্ঞানী
  • ফুরাদ = Furad =   অতুলনীয় , অন্যান্য
  • ফারুক = Faruk = সত্য-মিথ্যার পাথর্ক্য কারী হযরত
  • ফারহান মুহিব = Farhan Muhib = প্রফুল্ল প্রেমিক
  • ফারহান মাসুদ = Farhan Masud = প্রফুল্ল সৌভাগ্যবান
  • ফারহান আনজুম = Farhan Anjum = প্রফুল্ল তারা
  • ফারহান আনিস = Farhan Anis = প্রফুল্ল বন্ধু
  • ফাওক = Fawok =   উর্ধ্ব
  • ফখর = Fokhor =   গর্ভ
  • ফেরদাউস = Ferdous =   উদ্যান,। শ্রেষ্ঠ বেহেশত
  • ফাহিম আনিস = Fahim Anis = বুদ্ধিমান নেতা
  • ফাহিম আজমল = Fahim Ajmol = বুদ্ধিমান অতিসুন্দর
  • ফাহিম আবরার = Fahim Abrar = বুদ্ধিমান ন্যায়বান
  • ফাহাদ = Fahad =  সিংহ
  • ফাসীহ   = Fasih = বিশুদ্ধভাষী , বাকপটু ফাদল 
  • ফাদিল   = Fadil = অনুগ্রহ ( ফযলু ) 
  • হাসিন আবরার  = Hasin Abrar =  সুন্দর ন্যায়বান
  • হামিদ জাকের  = Hamid Jaker =  প্রশংসাকারী কৃতজ্ঞ
  • জামাম =  Jamam = পরিপূর্ণ, ভরপুর অবস্থা
  • জামি = Jami = সংগ্রহকারী, একত্রকারী
  • জামালুদ্দীন  = Jamaluddin = দ্বীনের সৌন্দর্য
  • রইস = Rowis = প্রধান / নেতা
  • রউফ = Rowf = স্নেহশীল / দয়ালু
  • রকী = Roki = উঁচু / উন্নত
  • হামি আশহাব  = Hami Ashab =  রক্ষাকারী বীর
  • হামি আসাদ  = Hami Asad =  রক্ষাকারী সিংহ
  • হামি আনজুম  = Hami Anjum =  রক্ষাকারী তারা
  • হামি আখতার  = Hami Akhtar =  রক্ষাকারী তারা
  • হামি আজবাল  = Hami Ajbal =  রক্ষাকারী পাহাড়
  • হামিদ আসেফ  = Hamid Asef =  প্রশংসাকারী যোগ্যব্যক্তি
  • হামিদ আশহাব  = Hamid Ashab =  প্রশংসাকারী বীর
  • হামিদ আজিজ  = Hamid Ajij =  প্রশংসাকারী ক্ষমতাসীন
  • হামিদ আবিদ  = Hamid Abid =  প্রশংসাকরী এবাদতকারী
  • হাসিন মুহিব  = Hasin Mubin =  সুন্দর প্রেমিক
  • হাসিন মাহতাব  = Hasin Mahtab =  সুন্দর চাঁদ
  • হাসিন ইশরাক  = Hasin Israk =  সুন্দর সকাল
  • হাসিন হামিদ  = Hasin Hamid =  সুন্দর প্রশংসাকার
  • জয়নুদ্দীন = Zainuddin = ধর্মের শোভা
  • জয়নুল আবেদিন = Zainul Abedin = ইবাদতকারীদের শোভা
  • জয়নুল ইসলাম = Zainul Islam = ইসলামের শোভা
  • জলীল = Jalil = মহান,মহীয়ান,সম্মানিত
  • আব্দুল জলীল = Abdul Jalil = মহামহিম আল্লাহর বান্দা
  • জসীম = Jasim = বিরাটকায়,বিশাল,মাংসল
  • জসীমুদ্দীন = Jasimuddin = ধর্মের (পক্ষের)বিশাল ব্যক্তি
  • জহীরুদ্দীন = Jahiruddin = ধর্মের পৃষ্ঠপোষক
  • ফাইদ (ফায়েয) = Faid =  শ্রেত, উচ্ছ্বাস, বান
  • ফুয়ুদ (ফুয়ুয) = Foyud = স্রোতধারা, আনুকম্পার ধারা
  • ফাতিন আবরেশাম = Fatin Abresham = সুন্দর অন্তর
  • ফাতিন নেহাল = Fatin Nehal = সুন্দর চারাগাছ
  • ফাতিন মেসবাহ = Fatin Mesbah = সুন্দর প্রদীপ
  • ফাহিম মুরশেদ = Fahim Murshed = বুদ্ধিমান প্রথপ্রদর্শক
  • ফাহিম মোসলেহ = Fahim Mosleh = বুদ্ধিমান সংস্কারক
  • ফাহিম হাবিব = Fahim Habib = বুদ্ধিমান বন্ধু
  • ফাহিম ফুয়াদ = Fahim Fuyad = বুদ্ধিমান অন্তর
  • ফাহিম ফয়সাল = Fahim Foysal = বুদ্ধিমান বিচারক
  • ফাহিম আশহাব = Fahim Ashab = বুদ্ধিমান বীর
  • ফাহিম আসাদ = Fahim Asad = বুদ্ধিমান সিংহ
  • জাসারাত = Jasarat = বীরত্, দুঃসাহস
  • জাদা = Jada = দান,উপহার,বৃষ্টি
  • জাদী = Jadi = উদার,বদান্য,মুক্তহস্ত
  • জাদীর = Jadir = উপযুক্ত,যোগ্য
  • জমশেদ = Jamshed = প্রাচীন পারস্য সম্রাটের নাম

উপরে বেশ অনেকগুলো ছেলেদের ইসলামিক নাম সম্পর্কে জেনেছি। মোটামোটি আশা করা যায় যে, একজন গার্ডিয়ান ইতিমধ্যে তাঁর ছেলে সন্তানের জন্য একটি সুন্দর নাম সিলেক্ট করতে সক্ষম হয়েছেন। তবে যদি এখনো একটি নামও খুঁজে না পেয়ে থাকেন, তাহলে দয়া করে নিম্নোক্ত নামগুলো মনোযোগ সহকারে পড়ুন। আশা করি এখান হতে ভালো ও অর্থবহ সুন্দর একটি ইসলামিক নাম খুঁজে পাবেন। চলুন নিম্নের ছেলেদের নামগুলো পড়া যাক।

ছেলেদের নামের তালিকা

যেহেতু আমাদের আজকের আর্টিকেলটিই মূলত ছেলেদের নামের তালিকা নিয়ে, সেহেতু আপনারা যারা যারা সত্যিকার অর্থেই আপনাদের ছেলে সন্তান কিংবা বাবুর জন্য মিষ্টি একটি নাম রাখতে চান, তাহলে আশা করি এখান হতে যেকোনো একটি ইসলামিক নাম চয়েজ করতে পারবেন। কেননা এখানে যে ছেলেদের নামের যে তালিকা বা লিস্টটি দেওয়া হয়েছে, সবগুলো নামই হলো ছেলেদের জন্য নাম এবং সবগুলো নামই হলো ইসলামিক নাম। একই সাথে নামের অর্থের দিকটিকেও বিবেচনা করা হয়েছে। যাইহোক, চলুন ছেলেদের নামের তালিকা পরের অংশটুকু পড়া যাক।

  • হামিদ ইয়াসির  = Hamid Yasir =  প্রশংসাকারী ধনবান
  • হামিদ তাজওয়ার  = Hamid Tajowar =  প্রশংসাকারী রাজা
  • হামিদ আহবাব  = Hamid Ahbab =  প্রশংসাকারী বন্ধু
  • হামিদ আবরার  = Hamid Abrar =  প্রশংসাকারী ন্যায়বান
  • হামিদ জাকের  = Hamid Jaker =  প্রশংসাকারী কৃতজ্ঞ
  • হাসান জামাল  = Hasan jamal =  উত্তম সৌন্দর্য
  • হামি জাফর  = Hami Jafor =  রক্ষাকারী বিজয়
  • হামিদ শাহরিয়ার  = Hamid Shariar =  প্রশংসাকারী রাজা
  • হামিদ রইস  = Hamid Rais =  প্রশংসাকারী ভদ্র ব্যক্তি
  • হাসিন রাইহান  = Hasin Raihan =  সুন্দর সুগন্ধি ফুল
  • হাদিদ সিপার  = Hadid Shipar =  লৌহ বর্ম
  • হামি লায়েস  = Hami Layes =  রক্ষাকারী সিংহ
  • হামি লুকমান  = Hami Lukman =  রক্ষাকারী জ্ঞানী ব্যক্তি
  • হামি খলিল  = Hami Khalil =  রক্ষকারী বন্ধু
  • হামি আলমাস  = Hami Almas =  রক্ষাকারী হীরা
  • হামি আসেফ  = Hami Asef =  রক্ষাকারী যোগ্য ব্যক্তি
  • জাকীর = Zakir = অধিক স্বরনশক্তিসম্পন্ন
  • জাকের = Zaker = স্বরনকারী, জিকিরকারী
  • ফরীদ = Forid =   অনুপম
  • জমিন = Zamin = জামিনদার,প্রতিভূ
  • জমিনুদ্দীন = Zaminuddin = দ্বীনের জামিনদার,ধর্মের
  • জমীর = Zamir = মন,হৃদ, বিবেক
  • জমীরুদ্দীন = Zamiruddin = ধর্মের বিবেক,দ্বীনের চেতনা
  • জহুরুল ইসলাম = Jahurul Islam = ইসলামের দ্বীপ্রহর
  • জহুরুল হক = Jahurul Haq = স্ত্যের প্রকাশ
  • জাফর = Jafor = জলস্রোত,ছোট নদী,সাহাবীর নাম
  • জাফরুল্লাহ = Jafarullah = আল্লাহর সাফল্য
  • জাবির  = Jabir = বিখ্যাত সাহাবী, সচ্চল
  • জাবের  = Jaber = মেরামতকারী, যে ভাঙ্গা হার যথাস্থানে বসায়, সাহাবীর নাম
  • জামাল =   Jamal = সৌন্দর্য, রূপ
  • জাভেদ  = Jabed = অমর, চিরস্থায়ী
  • জামান = Jaman = সময়, যুগ, জামানা
  • রফী = Rafi = সম্ভ্রান্ত
  • রফীক = Rofique = সাথী / কোমল
  • রবিউল = Robiul = বসন্ত
  • রমীয = Romij = অভিজাত / সম্মানিত
  • রজনী = Rojni = রাত
  • রাজিব = Rajib = সন্তুষ্ট
  • রাকীব = Rakib = অশ্বারোহী
  • রশিদ = Rashid = ধার্মিক
  • রাশিদ আবিদ = Rashid Abid = সঠিক পথে পরিচালিত ইবাদতকারী
  • রশিদ আবরার = Rashid Abrar = সঠিক পথে পরিচালিত ন্যায়বান
  • রাশিদ আহবাব = Rashid Ahbab = সঠিক পথে পরিচালিত বন্ধু
  • রশিদ আমের = Rashid Amer = সঠিক পথে পরিচালিত শাশক
  • রাশিদ আনজুম = Rashid Anjum = সঠিক পথে পরিচালিত তারা
  • রাশিদ আরিফ = Rashid Arif = সঠিক পথে পরিচালিত জ্ঞানী
  • রাশিদ আসেফ = Rashid Asef = সঠিক পথে পরিচালিত যোগ্যব্যক্তি
  • নাফী  = Nafi =  নাফী
  • নাভিম =  Navim =  নিদ্রাল
  • নায়ার =  Nayar  = ফাগুণ
  • নাহাত =  Nahat  = বেশ সুস্বাদু
  • জাইয়্যেদ = Jayyed = উত্তম,ভাল,সেরা
  • যাফির = Zafir = কাসিয়ার, সফল
  • জালাল উদ্দিন = Jalal Uddin = দ্বীনের বড় কাজ
  • জালাল আহমেদ = Jalal ahmed = প্রশংসানার বড় কাজ
  • জামিলুর রহমান = Jamilur Rahman = করুণাময়ের সৌন্দর্য
  • জামিল মাহবুব =  Jamil Mahbub = প্রিয় সুন্দর
  • জাহিদ হাসান = Jahid hassan = সুন্দরভাবে প্রচেষ্টাকারী
  • জিয়াউক হক = Jiaul hoq = সত্যের আলো
  • জিয়াউর রহমান = Ziaur Rahman = করুণাময়ের জ্যোতি
  • যাহির = Zahir = সুস্পষ্ট, প্রতীয়মান
  • যবি = Zabie = হরিণয
  • রাফত = Zarafat = বুদ্ধি, চালাকী
  • যারীফ = Zarif = বুদ্ধিমান, চালাক
  • জাহান আলী = Jahan ali = উৎকৃষ্ট পৃথিবী
  • জুনায়েদুল ইসলাম = Jonaidull islam = সৌন্দর্যময় ইসলাম
  • জাফর হাসান = Jafar hassan = সুন্দর নদী
  • রাগীব আসেব = Ragib Aseb = আকাঙ্গ্ক্ষি যোগ্যব্যক্তি
  • রাগীব আশহাব = Ragib Ashab = আকাঙ্গ্ক্ষিত বীর
  • রাগীব বরকত = Ragib Borkot = আকাঙ্গ্ক্ষিত সৌভাগ্য
  • রাগীব হাসিন = Ragib Hasin = আকাঙ্গ্ক্ষিত সুন্দর
  • রাগীব ইশরাক = Ragib Israk = আকাঙ্ক্ষিত সকাল
  • রাগীব মাহতাব = Ragib Mahtab = আকাঙ্ক্ষিত চাঁদ
  • রাগীব মোহসেন = Ragib Mohsen = আকাঙ্ক্ষিত উপকারী
  • রাগীব মুবাররাত = Ragib Mubarrat = আকাঙ্ক্ষিত ধার্মিক
  • রাগীব মুহিব = Ragib Muhib = আকাঙ্ক্ষিত প্রেমিক
  • রাগীব নাদের = Ragib Nader = আকাঙ্ক্ষিত প্রিয়
  • রাগীব নিহাল = Ragib Nihal = আকাঙ্ক্ষিত চারা গাছ
  • রাগীব নূর = Ragib Nur = আকাঙ্ক্ষিত আলো
  • রাগীব রহমত = Ragib Rohmot = আকাঙ্ক্ষিত দয়া
  • রাগীব রওনক = Ragib Rownok = আকাঙ্ক্ষিত সৌন্দর্য
  • ওয়াহিদ  = Wahed Wahid  = আল্লাহর না

ছেলেদের নামের তালিকার প্রায় অর্ধ অংশ ইতিমধ্যে আমরা পড়ে শেষ করেছি। নিম্নে ছেলেদের ইসলামিক নামের তালিকার পরবর্তী অংশটুকু দেওয়া হয়েছে। সম্পূর্ণভাবে আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়বেন। এতে করে আশা করি আপনার মেয়ে বাবুর জন্য সুন্দর ও অর্থবহ একটি নাম চয়েজ করতে পারবেন। চলুন তাহলে আর্টিকেলের পরবর্তী অংশটুকু সম্পর্কে পড়া যাক।

মুসলিম ছেলে শিশুদের আধুনিক নামের তালিকা

মুসলিম ছেলে শিশুর আধুনিক নামের তালিকা হতে আশা করি আপনারা ইতিমধ্যে কাঙ্খিত নামটি খুঁজে পেয়েছেন। আর নাম সিলেক্টের ক্ষেত্রে যে সকল নিয়ম ও রুলসগুলো মান্য করতে হয়, সেগুলোকে মান্য করেই এখানে উল্লেখিত সবগুলো ছেলের নাম। আশা করি যদি একজন বাবা-মা তারঁ সন্তানের জন্য একটি সুন্দর নাম রাখতে চায়, তাহলে এখান হতে যেকোনো একটি চয়েজ করতে সক্ষম হবেন।

  • এনাম হক = Anamuk Hoq = সত্য প্রভুর হাদীয়া
  • লাতিফ   =  Latie (latif)  =  পবিত্র / নমনীয় / সূক্ষু
  • লাতাফত   =  Latafat   =  নমনীয়তা
  • এজায = Eja’j = সম্মান, অলৌকিক
  • এতেমাদ = Itemad = আস্থা
  • এহতেশাম = Ehtesham = লজ্জা করা
  • এহসান = Ehsan = উপকার, দয়া
  • এরফান = Irfan = প্রজ্ঞা, মেধা
  • এসাম = Eisam = সাহাবীর নাম
  • এজাফা = Ejafa = উন্নতি, অধিক
  • এয়ানাত = Eanat = সহযোগিতা
  • এনাম = Anam = পুরস্কার
  • এহছানুক = Ehsanul Hoq = মহান প্রভুর দয়া
  • এবাদুর রহমান = Ebadur Rahman = করুণাময়ের বান্দা
  • এহতেশামুল হক = Ihtishamul Hoq = সত্যের মর্যাদা
  • এজাজ আহমেদ = Izaz Ahmed = অত্যাধিক প্রশংসাকারী
  • এমরান আহমেদ = Imrah Ahmed = প্রশংসনীয় জনবহুল বসতি
  • লুতফ   =  Lutfu   =  কবি / করুণা / সৌন্দর্য
  • এসফার = Esfar = আলোকিত হওয়া
  • এশায়াত = EShaa’t = প্রকাশ করা
  • এশারক = Eshraq = উদিত হওয়া
  • এখলাস উদ্দিন = Eklasuddin = ধর্মের প্রতি নিষ্ঠাবান
  • এমদাদুল হক = Imadul Hoq = সত্যের সাহায্য
  • এমদাদুর রহমান = Imdadur Rahman = দয়ালুর সাহায্য
  • এনায়েতুল্লাহ = Anaetullqoh = আল্লাহর উপহার, দান

উপরে যে নামগুলো ‍উল্লেখ করা হয়েছে, এর সবগুলোই হলো ইসলামিক নাম এবং সবগুলো নাম থেকে  আপনার ইচ্ছা অনুযায়ী যেকোনো একটি আপনার ছেলেদের জন্য চয়েজ করতে পারেন। বিভিন্ন বর্ণ দিয়ে ছেলেদের নামগুলো এখানে উল্লেখ করা হয়েছে।

অর্থসহ ছেলেদের ইসলামিক নামের তালিকা

অর্থসহ ছেলেদের ইসলামিক নামের তালিকা তে বিশাল একটি নামের লিস্ট দেওয়া যেহেতু হয়েছে, তাই এখন আপনারা ইচ্ছা করলেই যেকোনো একটি নাম এখান হতে চয়েজ করতে পারেন। তবে যদি আপনি এখনো কোনো একটি সিঙ্গেল নামও চয়েজ করতে না পেরে থাকেন, তাহলে দয়া করে নিম্নের দেওয়া ছেলেদের নামের তালিকাটি পড়ুন। আশা করি নিম্নে থাকা নামের লিস্ট হতে যেকোনো একটি চয়েজ করতে সক্ষম হবেন।

  • টাওয়াব = Tawyab
  • টাওসিফ = Tawsife
  • টাওহিদ = Tawhid
  • সুবহান = Subhan = প্রশংসা বা গুণগান।
  • নুবাই = Nabuy = কোনো ব্যক্তি নাম
  • নীম = Nim = শুভকর কিছু
  • নিয়াবত = Niabat = প্রতিনিধিত্ব করা
  • নাহিদ = Nahid =  অংশ বা পার্ট
  • নাশী  = Nashi =  উদীয়মান হয়েছে এমন কিছু
  • নামির = Namir = একদম খাটি
  • নাবিদ = Nabid = কারো জন্য সুসংবাদ
  • নাদী = Nadi  = আহবায়ক
  • নাজ্জার = Najjar =  সুতার
  • নাফীজ হুসাইন  = Nafeez Hussain  = অপরিচিত কেউ
  • নাজীব হুসাইন  = Nazeer Hussain  = সচ্চরিত্র সুদর্শন অধিকারী
  • নাসিফ ইয়াকীন  = Nasif Yaqin  = একজন বিশ্বাসী সেবক
  • নাহিদ হাসান  = Nadid Hasan = অতি সুন্দর
  • নিবরাস  = Nibras =  প্রদীপ বা শিখা
  • নাজের  = Nazer =  তরতাজা কোনো কিছু
  • নাসেক  = Nasek =  উপাসনাকারী কেউ
  • নাজেম  = Nazem =  উদীয়মান এমন কিছু
  • নাজী  = Naji  = দ্রতগামী কোনো কিছু
  • বদরুদ্দীন  = Badruddin =  ধর্মের চাঁদ
  • নাহীদ  = Nahid = যেখানে বাঘের আবাস্থল
  • নজীব  = Najib =  উচ্চস্বরে কান্না করা
  • ওয়াসিম মাহমুদ =  Wasim Mahmood  = প্রশংসনীয় সুদর্শন
  • ওয়াদূদুল ইসলাম =  Wadudul islam  = ইসলামের বন্ধু
  • ওয়াসিম মাহমুদ  = Wasim Mahmood  = প্রশংসনীয় সুদর্শন
  • ওয়াকিব উদ্দিন  = Wakir Uddin =  দ্বীনের প্রতিনিধি
  • এনায়েত = Anaet (Enayet) = অনুগ্রহ, অবদান
  • লা’ল   =  La’l   =  মুক্তা
  • লাফীয   =  Lafiz   =  বাক পটু
  • লেকা   =  Leqa   =  সাক্ষাৎ / মিলন
  • লোকমান হাসান   =  Lokman hasan   =  সুন্দর জ্ঞানী
  • লোকমান মাওদূদ   =  Lokman moudud   =  জ্ঞানী প্রিয়পাত্র

উপরের সমস্ত নামগুলো যদি আপনি ভালোভাবে পড়ে থাকেন, তাহলে অবশ্যই এখানে উল্লেখিত নামগুলো হতে যেকোনো একটি চয়েজ করতে সক্ষম হয়েছেন। অন্যথায় ছেলেদের ইসলামিক নাম জানতে নিম্নে দেওয়া নামগুলো পড়ুন। আশা করি ভালো ও সুন্দর একটি ইসলামিক নাম সিলেক্ট করতে আপনি সক্ষম হবেন।

মুসলমান ছেলে শিশুর নাম

মুসলমান ছেলে শিশুর নাম গুলো সাধারণত বেশ চমৎকার ও মায়বীয় হয়ে থাকে। আর এই বিধায় আমাদের মুসলিম ভাইদের মধ্যে নাম রাখার ক্ষেত্রে ইসলামিক নাম রাখার একটি ফ্লো দেখা যায়। যেহেতু মুসলিম নাম রাখার বিষয়টি এসেছে, তাই যখনই ছেলে কিংবা মেয়ের নাম রাখতে চাইবেন, তখন উপরোক্ত বিষয়গুলোকে লক্ষ্য রেখেই নাম নির্ধারণ করবেন। অন্যথায় একটি ভুল নাম সিলেক্ট করার সম্ভাবনা থাকে। যাইহোক, আশা করি ছেলেদের ইসলামিক নাম সম্পর্কে জানতে পেরে আপনারা উপকৃত হতে পেরেছেন। চলুন নিম্নে থাকা ছেলেদের নামগুলো সম্পর্কে জানা যাক।

  • টিবামি = Tibami
  • টাইবিট = Taibit
  • টাজিমুদ্দিন = Tajimuddin
  • টাজিম = Tajim
  • টাজাম = Tajam
  • টাছির = Tacir
  • টয়মোর = Toymor
  • লোকমান মাসউদ   =  Lokman masud   =  জ্ঞানী ভাগ্যবান
  • লোকমান করিম   =  Lokman karim   =  দয়ালু জ্ঞানী
  • লাজনা হাসান   =  Lajna hasan   =  সুন্দর বিপ্লব
  • লাজনা মাহফুজ   =  Lajna mahfuj   =  সুরক্ষিত বিপ্লব
  • লুকমান   =  Luqman   =  কুরআনে উল্লিখিত একজন জ্ঞানী ব্যক্তির নাম
  • লায়ীক   =  Laeeq   =  দক্ষতা / যোগ্যতা
  • লিয়াকত   =  Liaqat   =  দক্ষতা / যোগ্যতা
  • বাহার ইশতিয়াক  =  Bahar Istiaq  =  প্রতিদ্ধ অনুরাগী
  • বদরুদ্দীন  =  Badaruddin  =  ধর্মের পূর্ণচন্দ্রিমা
  • বদরুদ্দীন আহমদ  =  Badaruddin ahmed  =  ধর্মের পূর্ণ চন্দ্রিমা বা অত্যন্ত সুশ্রী
  • বশীরদ্দীন  =  Bashiruddin  =  সুসংবাদবহন কারী ধর্ম
  • বশীর আহমদ  =  Bashir ahmad  =  প্রশংসিত সুসংবাদবহনকারী
  • বেশারাতুল হাসান  =  Besharatul Hasan  =  সুন্দর সুসংবাদ
  • বেলাল হোসাইন  =  Belal Hossain  =  সুন্দর পানি
  • বখতিয়ারুদ্দিন  =  Bokhtiuruddin  =  সৌভাগ্যবান দ্বীন
  • বজলুর রহমান  =  Bazlur Rahman  =  করুণাময়ের দান দক্ষিণা
  • বখতিয়ার আশহাব   = Bokhtiar Ashab =  সৌভাগ্যবান বীর
  • বখতিয়ার আসলাম   = Bokhtiar Aslam =  সৌভাগ্যবান নিরাপদ
  • বখতিয়ার আজিম   = Bokhtiar Ajim =  সৌভাগ্যবান শক্তিশালী
  • বখতিয়ার আবিদ   = Bokhtiar Abid =  সৌভাগ্যবান এবাদতকারী
  • বখতিয়ার আদিল   = Bokhtiar Adil =  সৌভাগ্যবান ন্যায়পরায়ণ
  • বখতিয়ার আখতাব   = Bokhtiar Akhtar =  সৌভাগ্যবান বক্তা
  • বখতিয়ার আকরাম   = Bokhtiar Akram =  সৌভাগ্যবান দানশীল
  • বখতিয়ার আহবাব   = Bokhtiar Ahbab =  সৌভাগ্যবান বন্ধু
  • বিপুল   = Bipul =  প্রচুর / অনেক
  • শামছুদ্দৌলা = shamsuddollha = একটি রাষ্ট্রের সূর্য।
  • শামছুর রাহমান = Shamsur Rahman  =পরম করুণাময় আল্লাহর সূর্য।
  • শামছুল আরেফিন = Shamsul Arefin = বিশেষ জ্ঞানীদের সূর্য।
  • শামসুল  আলম = Samsul Alam = মহা বিশ্বের সূর্য।
  • শামসুল ইসলাম = Sahmsul Islam = দ্বীন ইসলামের সূর্য।
  • শামসুল করিম = Samsul Karim = দয়াময় পরম আল্লাহর সূর্য।
  • শামসুল হক = Samsul Haque = সত্যের সূর্য।
  • শফীকুল্লাহ =  Shafiqullah =আল্লাহ তা’আলার অতি স্নেহশীল বান্দা।
  • শমসের আলী = Shamser Ali = সাহাবী আলীর তরবারি।
  • মুআদ্দাব হোসাইন = Muaddab Hossain  = ভদ্র ও সুন্দর।
  • মুনাওয়ার  মাহতাব = Munaour Mahtab = উজ্জ্বল দীপ্তিময় চাঁদ।
  • মুস্তাফা মুজিদ = Mustafa Mujid = গ্রীহিত আবিষ্কারক।
  • মুস্তাফা রাশিদ = Mustafa Rashid = পথ প্রদর্শক।
  • মুজতাবা রাফিদ = Mojtaba Rafid = সিলেক্টেড প্রতিনিধি।
  • মুবতাসিম ফুয়াদ = Mubatasim Fuyad = হাসিখুশিময় হৃদয়।
  • মুস্তাফা গালিব = Mustafa Galib = কোনো কিছুতে স্বীকৃত বিজয়ী।
  • মুনিফ মুজীদ = Munif Mujid = সেরা আবিষ্কারক।
  • মুশতাক শাহরিয়ার = Mustaque Shariar = রাজা।
  • মাহফুজুল হক = Mahfujul Haque = সংরক্ষিত সঠিক সত্য।
  • মুজিবর রহমান = Mojibor Rahman = গ্রহণকারীর করুণাময়।
  • মাহবুবুল হক = Mahbobul Haque = চিরসত্য বন্ধু।
  • মাহবুদুল হাসান = Mahbodul Hasan = সকলের প্রশংসিত সুন্দর।
  • মুসলিমুদ্দিন = Muslimuddin = ইসলামের প্রতি আত্মসমর্থনকারী।
  • মারুফ-বিল্লাহ = Maruf-Billah = আল্লাহর জন্য প্রসিদ্ধ।
  • মুর্শেদুর খায়ের = Murshedur Khaer = উত্তম গুরু।
  • সুমন = Sumon = উত্তম মানের অধিকারী।
  • রাগীব সাহরিয়ার = Ragib Sahriar = আকাঙ্ক্ষিত রাজা
  • নিজামী =  Nizami  = ব্যবস্থা করা
  • নিহান =  Nihan =  গোপন রাখা
  • নুবায়ের  = Nubair =  চতুর একজন
  • নোভিদ =  Novid = একটি  সুসংবাদ
  • নাবীল মুদীর  = Nabil Modeer  = অভিজাত প্রশাসক এমন কেউ
  • নূরুল ইসলাম  = Nurul Islam =  দ্বীন ইসলামের আলো
  • নাদীম মোস্তফা  = Nadeem Mustafa =সবার দ্ধারা  নির্বাচিত সঙ্গী
  • নাসের হোসাইন =  Nasir Hossain =  সাহায্য কারী
  • নোমান সিদ্দীক  = Noman Siddik = অতি  নেয়ামতের ঘর
  • নূরুল্লাহ  = Nurullah  = আল্লাহ তা’আলার জ্যোতি
  • নূরুদ্দীন =  Nududdin =  ইসলাম ধর্মের জ্যোতি
  • নাভেদ লতীফ =  Naved Lateef  = সূক্ষ্ম আনন্দ বার্তা
  • নিহালুদ্দীন  = Nihaluddin  = দ্বীন ইসলামের প্রতি সন্তুষ্ট
  • নাসরুল্লাহ =  Nasarullah  = আল্লাহ প্রদত্ত সাহায্য
  • নাছিরুল হক  = Nasirul Haq = দ্বীন ইসলামের জন্য উৎসর্গ
  • নিয়ামুল্লাহ  = Niyamatullah  = আল্লাহ তা’আলার কল্যান
  • নাসিরুদ্দিন  = Nasiruddin =  ইসলাম ধর্মের সাহায্যকারী
  • নাকীব মুনসিফ  = Nakib Munsif  = একটি দলের দলনেতা
  • নেহাল = Nehal = বিটপী
  • নাজীহ  = Najih =  দ্রুতগামী কোনো কিছু
  • নেছার = Nesar = উৎসর্গ, বিসর্জন করা
  • নাজাত = Najat = মুক্তি বা রক্ষা
  • শরিফুজ্জামান = Sarifujjaman = এক যুগের মহৎ ব্যক্তি।
  • শরিফুর রহমান = Sarifur Rahman = করুণাময়ের বান্দা।
  • শরিফুল ইসলাম = Sariful Islam = ইসলামের মধ্যে সম্ভ্রান্ত একজন।
  • শরিফুল হক  = Sarful Haque = সত্যের জন্য সম্ভ্রান্ত ব্যক্তি।
  • টাছনিম = Tacnim
  • ওয়ায়ীদ  = Waid =  সাবধানবাণী
  • ওয়াক্বিন  = Wakkin =  পর্যবেক্ষণকারী
  • ওয়াক্বিন =  Wakkil  = প্রতিনিধি
  • সুলতান = Sultan = রাজা।
  • সৈয়দ = Saiwod = নেতা।
  • সোহাগ = Shohag = আদর বা মায়া করা।
  • সোহেল = Shohel = শুকতারা।
  • সৌরভ = Sourov = সুবাস বা ভালো গন্ধ।
  • সুল্লাম = Sullam = সুস্থ্য।
  • সাম্মাক = Sammak = ধাপ বা মই।
  • সুলায়মান = Sulayman = অভিবাদন।
  • সামা আন = Shamaan = রাতের গল্পকারী।
  • সালামাত = Salamat = সরলতা।

উপরোক্ত সবগুলো নাম হলো ছেলেদের আর এই ক্ষেত্রে নাম সিলেক্টের উপর আপনারা যে জোর দিয়ে থাকেন, তার থেকে সম্পূর্ণভাবে আলাদা উপায়ে এখানে উল্লেখিত নামগুলো আলাদা করে তুলে ধরা হয়েছে। তাই যদি আপনার একটি ছেলে সন্তান থেকে থাকে, আর একটি মুসলিম বা ইসলামিক নাম সিলেক্ট করতে চান, তাহলে এখানে হতে যেকোনো একটি নাম চয়েজ করে আপনার ছেলে সন্তানের জন্য রাখতে পারেন।

দুই অক্ষরের ছেলেদের ইসলামিক নাম অর্থসহ

দুই অক্ষরের ছেলেদের ইসলামিক নাম অর্থসহ জানতেও অনেক গার্ডিয়ান ইন্টারনেটে সার্চ দিয়ে থাকে। আর তার প্রেক্ষিতেই আজকের আর্টিকেলে আমরা এমন বেশ কিছু ছেলেদের নাম নিয়ে আসছি, যেগুলো মুলত ইসলামিক এবং ইতিবাচক অর্থবহ। আর ক্রমান্বয়ে সবগুলো নাম এক এক করে এখানে দেওয়া হয়েছে। যেমন আপনারা এতোক্ষণ অনেকগুলো নাম উপরের তালিকা হতে পড়েছেন। ঠিক একই ভাবে নিম্নে আরো অনেকগুলো ছেলেদের ইসলামিক নাম দেওয়া হয়েছে। চলুন সেগুলো সম্পর্কে জানা যাক।

  • বনিক   = Bonik =  বানিজ্যকারী / বিক্রেতা
  • বখতিয়ার পরিদ   = Bokhtiar Porid =  সৌভাগ্যবান অনুপম
  • বখতিয়ার ফতেহ   = Bokhtiar Fateh =  সৌভাগ্যবান বিজয়ী
  • ফরহাতুল হাসান = Farhatul Hasan = সুন্দর উৎস
  • ফারহান তানভীর = Farhan Tanvir = প্রফুল্ল আলোকিত
  • ফারহান তাজওয়া = Farhan Tajowa = প্রফুল্ল রাজা
  • ফারহান সাদিক = Farhan Sadik = প্রফুল্ল সত্যবান
  • ফারহান রফিক = Farhan Rofiq = প্রফুল্ল বন্ধু
  • ফারহান নাদিম = Farhan Nadim = প্রফুল্ল সঙ্গী
  • ফালাহ = Falah =  সফল
  • ফারহান মাশুক = Farhan Masuk = প্রফুল্ল প্রেমাস্পদ
  • ফারহান মনসুর = Fahran Monsur = প্রফুল্ল বিজয়ী
  • ফারহান মাহতাব = Farhan Mahtab = প্রফুল্ল চাঁদ
  • লাইস   =  Lais   =  সিংহ
  • লুবান মিহদা   =  Loban mihda   =  সুগন্ধি দ্রব্য উপহার পাত্র
  • লাত্বীফ মাহমুদ   =  Latif mahmud   =  অনুগ্রহ পরায়ণ প্রশংসনীয়
  • লুবান লতিফ   =  Luban latif   =  সূক্ষ্ম সুগন্ধি
  • লুবান কাসির   =  Luban Kasir   =  অতিরিক্ত সুগন্ধি
  • লোকমান হাবিব   =  Lokman habib   =  প্রিয়জ্ঞানী
  • লোকমান মাসুম   =  Lokman masum   =  নিষ্পাপ জ্ঞানী
  • লোকমান রফিক   =  Lokman rafiq   =  জ্ঞানী বন্ধু
  • লোকমান হাকীম   =  Lukman hakim   =  জ্ঞানী দার্শনিক
  • লাবীব আব্দুল্লাহ   =  Labib Abdullah   =  বুদ্ধিমান আল্লাহর বান্দা
  • লতিফুর রহমান   =  Lateefur Rahman   =  পবিত্র করুণাময় / নমনীয়
  • লুৎফুজ্জামান   =  Lufuzzaman   =  জামানার সৌন্দর্য
  • লাত্বফান  =  Latfan  =  কল্যাণ কারী
  • লুবান  =  Loban  =  সুগন্ধি দ্রব্য
  • লাযনাLozna  =  সম্মিলিত হওয়া, বিপ্লব
  • লবীদ  =  Labid  =  এক প্রকারের পাখি, বাসিন্দা
  • বাহাউদ্দিন  =  Baha Uddin  =  দ্বীনের আলো
  • বাসীরুল হক  =  Baseerul Hoq  =  সত্য দর্শনকারী
  • বরকতুল্লাহ  =  Baraktullah  =  আল্লাহর কল্যাণ
  • বদীউজ্জামন  =  Badeeuzzaman  =  যুগের মধ্যে দুস্প্রাপ্য বস্তু
  • বাহরুল ইসলাম  =  Baharul islam  =  ইসলামের সমুদ্র
  • বারা  =  Bara  =  একজন সাহাবীর নাম, সফর মাসের প্রথম রাত
  • বরকত (ফার্সি)  =  Barkat  =  সৌভাগ্য, আশীর্বাদ
  • বারাকাহ (আরবী)  =  Baraka  =  আশীর্বাদ
  • বুজুর্গ  =  Buouzag  =  উদয়ন, আলোকন
  • বখতিয়ার জলীল  =  Bakhtiyar Jalil  =  সৌভাগ্যবান মহান
  • বেলায়েতুর রহমান  =  Belaitur Rahman  =  করুণাময়ের কতৃর্ত্ব
  • বখতিয়ার আবেদ  =  Bokhtiyar Abed  =  সৌভাগ্যবান এবাদতকারী
  • ফারহান লতিফ = Farhan Latif = প্রফুল্ল পবিত্র
  • ফারহান লাবিব = Farhan Labib = প্রফুল্ল বুদ্ধিমান
  • ফারহান খলিল = Farhan Kholil = প্রফুল্ল বন্ধু
  • ফারহান ইশরাক = Farhan Israk = প্রফুল্ল সকাল
  • ফারহান ইহসাস = Farhan Ihsas = প্রফুল্ল অনুভূতি
  • ফারহান হাসিন = Farhan Hasin = প্রফুল্ল সুন্দর
  • ফারহান ফুয়াদ = Farhan Fuyad = প্রফুল্ল অন্তর
  • ফারহান বাসিম = Farhan Basim = প্রফুল্ল হাস্যোজ্ব্যল
  • ফারহান আতেফ = Farhan Atef = প্রফুল্ল দয়ালু
  • ফারহান আখতার = Farhan Akhtar = প্রফুল্ল নেতা
  • ফাহাদ = Fahad =  সিংহ
  • ফাতেহ = Fateh = বিজয়ী

উপরের প্রায় সবগুলো নাম হলো ছেলেদের জন্য ইসলামিক নাম এবং একজন গার্ডিয়ান কোনো রকম সংকোচন ছাড়াই এখান হতে যেকোনো একটি নাম চয়েজ করতে পারে। প্রয়োজনবোধে আপনারা প্রথম হতে পুনরায় পুরো আর্টিকেলটি পড়ুন। এতে করে আপনারা নতুন নাম এবং ছেলেদের জন্য প্রোপার একটি ইসলামিক নাম সিলেক্ট করতে পারবেন।

ছেলেদের ইসলামিক নাম নিয়ে শেষ কথা

ছেলেদের ইসলামিক নাম নিয়ে শেষ কথা
ছেলেদের ইসলামিক নাম নিয়ে শেষ কথা

ছেলেদের ইসলামিক নাম সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরে আশা করি আপনাদের নিকট এখন নাম চয়েজ সহ সিলেক্ট করার বিষয়টি বেশ পরিষ্কার। যাইহোক, উক্ত কারণেই মূলত আজকের আর্টিকেলটি। এছাড়াও আপনারা ইচ্ছা করলে এখান হতে যেকোনো একটি নাম চয়েজ করতে পারেন। এখানে যে সমস্ত নামগুলো উল্লেখ করা হয়েছে, প্রায় সবগুলো নামই হলো ইসলামিক নাম এবং একই সাথে সবগুলো নাম হলো ছেলেদের জন্য প্রযোজ্য। তাই যদি আপনারা সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ে থাকেন, তাহলে আশা করি ইতিমধ্যে আপনারা এখান হতে যেকোনো একটি নাম পিক করতে সক্ষম হয়েছেন আর যদি এখনোও অবধি একটি নামও চয়েজ করতে না পেরে থাকেন,তাহলে পুনরায় দয়া করে সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন।

সত্যিকার অর্থে একজন ব্যক্তি তাঁর ছেলে বাবুর জন্য কিভাবে ভালো ও সুন্দর নাম রাখতে পারে, নাম সিলেক্টের ক্ষেত্রে কোন জিনিসগুলো মাথায় রাখা উচিত এই নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। আর উক্ত জিনিসগুলো উল্লেখিত সবগুলো নামে বাস্তবায়ন করা হয়েছে। তাই যদি আপনার একজন ছেলে সন্তান থাকে এবং আপনি তাঁর জন্য একটি নাম সিলেক্ট করতে চান, তাহলে এখান হতে একটি ইসলামিক নাম পিক করতে পারেন অথবা কিভাবে নাম সিলেক্ট করতে হয়, সে ব্যাপারে এখন আপনি জ্ঞাত। সর্বপরির, বলা চলে যে, আজকের আর্টিকেল তথা ছেলেদের ইসলামিক নাম দ্ধারা আপনারা বেশ চমৎকারভাবে উপকৃত হয়েছেন।

ছেলেদের ইসলামিক নাম সম্পর্কে আরো জানতে

BanglaTeach
E-HaqDigital Marketer at- BanglaTeach

E-Haq is the founder of BanglaTeach. He is expertise on Education, Health, Financial, Banking, Religious and so on.

Leave a Comment