ছেলেদের মুখের ব্রণের দাগ দূর করার উপায় | ৮টি উপায় জানুন

BanglaTeach
E-Haq
Digital Marketer at- BanglaTeach

E-Haq is the founder of BanglaTeach. He is expertise on Education, Health, Financial, Banking,...

Sharing is caring!

ছেলেদের মুখের ব্রণের দাগ দূর করার উপায়
ছেলেদের মুখের ব্রণের দাগ দূর করার উপায়

ছেলেদের মুখের ব্রণের দাগ দূর করার উপায় কি? কিভাবে একজন তাঁর মুখে থাকা পূর্বের ব্রণের দাগ খুব সহজেই দূর করতে পারবে এবং তা স্থায়ীভাবে? কিংবা ছেলেদের মুখের দাগ দূর করার উপায় এবং যদি বর্তমানে ব্রণ থেকেও থাকে, তাহলে দ্রুত ব্রণ দূর করার উপায় সম্পর্কেই আজকের আমাদের এই আর্টিকেল।

ব্রণ বা পিম্পল বিশেষ করে ইয়াং জেনারেশনের নিকট বেশ পরিচিত একটি শব্দ এবং এর পরের স্টেপটি হলো ব্রণের দাগ! ব্রণের দাগ দূর করার উপায় নিয়ে আলোচনা শুরুর পূর্বে চলুন গুরুত্বপূর্ণ কিছু তথ্য প্রথমে জেনে নিই। ( নাকের পলিপাস দূর করার ঘরোয়া উপায় সম্পর্কে জানুন খুব সহজেই )

আচ্ছা আপনাকে যদি বলি ব্রণ কেন হয়? যদি আপনি এর উত্তর জানেন, তাহলে পরের প্রশ্ন হলো কিভাবে ব্রণ ভালো করবেন বা দূর করবেন? যাইহোক, উক্ত প্রশ্ন দু’টির উত্তর যদি আপনার জানা থাকে, তাহলে এবার আপনি প্রস্তুত যে কিভাবে ছেলেদের ব্রণের দাগ দূর করবেন সে বিষয়টি জানার জন্য। যাইহোক, আলোচনা দীর্ঘায়িত না করে চলুন জেনে নিই ছেলেদের মুখের ব্রণের দাগ দূর করার উপায় সম্পর্কে।

ছেলেদের মুখের ব্রণের দাগ দূর করার উপায় সমূহ

ছেলেদের মুখের ব্রণের দাগ দূর করার উপায় সমূহ
ছেলেদের মুখের ব্রণের দাগ দূর করার উপায় সমূহ

সাধারণত আপনি যদি ইন্টারনেট তথা গুগলে সার্চ করেন, তাহলে আপনি এরকম অনেক কিছু দেখতে পারেন যে, ৭দিনে ব্রণ দূর করার উপায়, ব্রণের জন্য ক্রিম সহ ব্রণ দূর করার ঔষধ এবং মাঝে মাঝে এমন কিছুও দেখবেন যা আপনি পূর্বে কখনই শুনেন নি। যাইহোক, প্রাকৃতিক উপায়ে যদি ব্রণ এবং ব্রণের দাগ দূর করতে সক্ষম হওয়া যায়, তাহলে কৃত্রিম তথা কোনো রকম থার্ড পার্টি ক্যামিকেল ক্রিম বা ঔষেধের দিকে না যাওয়াই ভালো। আর এখন আমরা জানবো কিভাবে একজন ছেলে তাঁর মুখে থাকা ব্রণের দাগগুলো খুব সহজেই দূর করতে পারে সম্পূর্ণ ঘরোয়া উপায়ে। ছেলেদের মুখের ব্রণের দাগ দূর করার উপায়গুলো হলো-

  • অ্যালোভেরা জেল ব্যবহার করা
  • পেঁপে ও চালের গুঁড়ো
  • মধু ব্যবহার
  • ডিমের সাদা অংশ
  • লেবু ব্যবহার
  • দারুচিনি গুড়া ও গোলাপজল
  • আপেল এবং মধুর মিশ্রণ
  • ফেসওয়াশ ব্যবহার করা

মূলত উপরের দেওয়া উপকরণ তথা পদ্ধতিগুলোকে সঠিকভাবে কাজে লাগিয়ে ছেলেদের মুখের ব্রণ দূর করা সম্ভব। কিভাবে? হ্যাঁ, চলুন এক একটি উপায় করে উল্লেখিত সবগুলো উপায় সম্পর্কে জানা যাক।

অ্যালোভেরা জেল ব্যবহার করা

একজন স্কিন সচেতন মানুষ অবশ্যই অ্যালোভেরা জেল সম্পর্কেত সম্মুখ জ্ঞান রাখে এবং এই জেল ছেলেদের মুখে থাকা ব্রণের দাগ দূর করতে বেশ কার্যকারী। আর কার্যকারিতা পাওয়া জন্য আপনাকে দিনে ২বার করে অ্যালোভেরা জেল ব্যবহার করতে হবে। এবং ব্যবহার করার ৩০ মিনিট পর মুখ-মন্ডল ধুয়ে ফেলুন। বলে রাখা ভালো যে, অ্যালোভেরা জেল শুধু মাত্র ব্রণের দাগ দূর করার উদ্দেশ্যেই ব্যবহার হয়ে থাকে না। এটি মুখের স্কিনে সৌন্দর্যতা ও টানটান ভাব নিয়ে আসে। যা একজন ছেলেকে পূর্বের চেয়ে আরো সৌন্দর্যময় করে তুলে।

পেঁপে ও চালের গুঁড়ো

ব্রণের কাল দাগ দূর করতে পেঁপে ও চালের গুঁড়ো বেশ চমৎকারভাবে কাজ করে। এর উপকার পেতে কিভাবে তা ব্যবহার করবেন? মূলত প্রথমে আপনাকে একটি পাঁকা পেঁপে নিতে হবে এবং তা ছোট ছোট আকারে কেঁটে একটি পাত্রে নিয়ে ভালোভাবে পিষে ফেলতে হবে। এরপরের কাজ হলো একটি পত্রতে একচা-চামচ বা এর চেয়ে সামান্য বেশি পাতিলেবুর রস নিয়ে চালের গুঁড়ো সাথে মিক্স করে নিন ভালো ভাবে। এবার মিক্সকৃত অংশ এবং পাঁকা পেঁপের পেস্ট একসাথে মিক্স করুণ। এবার পেঁপে, চালের গুঁড়ো ও লেবুর রসের মিক্স মুখে লাগিয়ে নিন ভালোভাবে। এভাবে মুখে লাগিয়ে অন্তত ১৫-২০ মিনিট রাখুন। এরপর ভালোভাবে মুখমন্ডল ধুয়ে নিন সাথে হালকা করে মুখের স্কিনকে মেসেজ করে নিন। এভাবে কয়েকদিন ব্যবহার করুণ এবং আশা করি ছেলেদের মুখের ব্রণের দাগ দূর হয়ে যাবে খুব তাড়াতাড়ি।

এখানে একটি বিষয় উল্লেখ্য যে, যদি কোনো কারণে পাঁকা পেঁপে পেতে অসুবিধা হয়, তাহলে এই ক্ষেত্রে ঘৃতকুমাড়ীর রস ব্যবহার করা যায়।

মধু ব্যবহার

সাধারণত মুখে স্কিন কেয়ারের জন্য দু’ভাবে মধু ব্যবহার করতে পারেন। এক হলো খালি মধু ব্যবহার এবং অন্যটি হলো মধুর সাথে সাপ্লিকেট কিছু উপাদান ব্যবহার করা।

এখন ব্রণের দাগ দূর করতে কিভাবে মধু ব্যবহার করবেন? এই ক্ষেত্রেও আপনারা দু’ভাবে ব্যবহার করতে পারেন। প্রথমে আপনারা খালি মধু আপনার মুখে লাগিয়ে সারা রাঁত রেখে দিন এবং সকাল বেলা সুন্দরভাবে মুখ-মন্ডল ধুয়ে নিন। এতে করেও মুখের ব্রণের দাগ দূর হবে।

আর অন্যটি হলো মধুর সাথে দারুচিনি মিক্স করে তা ঠিক ব্রণের কালো দাগের উপর সুন্দর করে লাগিয়ে দিন। কয়েকঘন্টা রেখে তা ধুয়ে ফেলুন অথবা আপনার ইচ্ছা অনুযায়ী তা সারা রাঁতও মুখে লাগিয়ে রাখতে পারেন। এরপর সকাল বেলা ঘুম থেকে উঠে তা ফেসওয়াশ বা খালি পানি দ্ধারা ধুয়ে ফেলতে পারেন। এতে করে মুখের ব্রণের দাগ দূর হয়ে যাবে।

ডিমের সাদা অংশ

ত্বকের যত্নে ডিমের সাদা অংশ ব্যবহার দীর্ঘদিন হতে ব্যবহার হয়ে আসছে। ত্বক সুন্দর করতে ডিমের সাদা অংশ যেমন উপকারী ঠিক একই ভাবে ত্বকে থাকা ব্রণের কালো দাগ দূর করতেও ডিমের সাদা অংশ বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। এখন প্রশ্ন আসতে পরে যে, কিভাবে ব্রণের কালো দাগ দূর করতে ডিমের সাদা অংশ ব্যবহার করবেন? মূলত ডিমের সাদা অংশকে পেস্ট করে সেই কালো ব্রণের দাগের উপর কতক্ষণ লাগিয়ে রাখুন। আর যদি সম্ভব হয় তাহলে ডিমের সাদা অংশের সাথে কিছুটা লেবুর রস অ্যাড করুন। এতে করে এর কার্যক্ষমতা আরো বৃদ্ধি পাবে। আর যখনই আপনি লেবুর রস ব্যবহার করবেন, তখন আপনি ঘন্টা-খানেক পর মুখ ধুয়ে ফেলুন।

লেবু ব্যবহার

ত্বকের যত্নে লেবু খুব পরিচিত একটি প্রাকৃতিক উপাদান। মেয়ে হতে ছেলে প্রায় সবাই মুখের হালকা স্কিনের যত্নে লেবু বিভিন্নভাবে ব্যবহার করে থাকে। কেউ লেবুর সাথে মধু মিশিয়ে ব্যবহার করে আবার কেউ বা লেবুর ‍সাথে হালকা গোলাপ জল ব্যবহার করে। যাইহোক, এখন একজন ছেলে তাঁর মুখের ব্রণের দাগ দূর করতে কিভাবে লেবু ব্যবহার করবে?

প্রথম লেবু হলো একটি প্রাকৃতিক ব্লিচ এবং আপনি এই ক্ষেত্রে লেবুর রসের সাথে সামান্য পানি মিশিয়ে একটি পরিষ্কার তুলা দ্ধারা ব্রণের কালো দাগগুলোতে লাগাতে পারেন। দ্ধিতীয়ত হচ্ছে যদি এতে করে আপনার স্কিনের জ্বালা-পোড়া শুরু হয়, তাহলে হালকা গোলাপ জ্বল মিক্স করে নিতে পারেন।

এখানে একটি বিষয় লক্ষণীয় যে, আপনি উক্ত মিক্সের সাথে ই-ক্যাপসুল মিক্স করতে পারেন। ভিটামিন ই ক্যাপসুল ত্বকের যত্নে বেশ উপকারী একটি উপাদান হিসেবে কাজ করে। উক্ত ফরম্যাটে আপনি মোট ১০-১৫দিন ব্যবহার করুণ। আশা করি ছেলেদের মুখের ব্রণের দাগ দূর হয়ে যাবে।

লেবুর ফেসপ্যাক ব্যবহার করতে পারেন। তো এটি কিভাবে তৈরি করে আর কিভাবে ব্যবহার করে? প্রথমে আপনাকে ১ টেবিল চামচ লেবুর রস, ১ টেবিল চামচ মধু, ১ টেবিল চামচ আমন্ড তেল, ২ টেবিল চামচ দুধ একসাথে মিক্স করতে হবে। এরপর মিক্সটি আপনার মুখে ব্রণের দাগের উপর ভালোভাবে সতর্ক থেকে লাগিয়ে দিতে হবে। কতক্ষণ পর দেখবেন, উক্ত মিক্সটি মুখে শুকিয়ে গিয়েছে। তখন সুন্দর করে আপনার মুখমন্ডল ধুয়ে ফেলুন।

উল্লেখ্য: যদি ব্রণ থাকে মুখে, তাহলে তখন দুধ ব্যবহার করা হতে বিরত থাকুন। না হয় উপকারের চেয়ে অপকার বেশি হওয়ার সম্ভবনা বেশি থাকে।

দারুচিনি গুড়া ও গোলাপজল

আশা করি ইতিমধ্যে আপনারা জানেন যে গোলাপজল ত্বকের যত্নে কতটা কার্যকারী এবং ছেলে-মেয়ে উভয়ে ত্বক বা স্কিনের যত্নে এটিকে ব্যবহার করে থাকে। যাইহোক, ব্রণের দাগ দূর করতে গোলাপজ্বল ম্যাজিকের ন্যায় কাজ করে থাকে। আর এর জন্য আপনাকে দারুচিনি সাথে ব্যবহার করতে হবে। এখন প্রশ্ন আসতে পারে যে, কিভাবে দারুচিনি ও গোলাপজল একসাথে ব্যবহার করবেন? প্রথমে আপনাকে দারুচিনি পেষে পেস্ট করতে হবে। এরপর দারুচিনির সাথে গোলাপজল মিক্স করে ব্রণের কালো অংশে দিতে হবে। এভাবে এর প্রলেপ ১০-২০ মিনিট দেওয়ার পর পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলতে হবে । এভাবে কয়েক সপ্তাহ ব্যবহার করলে ছেলেদের মুখের ব্রণের কালো দাগ দূর হয়ে যাবে খুব সহজেই।

আপেল এবং মধুর মিশ্রণ

ত্বকের জন্য মধু কতটা উপকারী তা বলে বোঝানো বা প্রকাশ করা সম্ভব নয় আর আমার ধারণা আপনারা অধিকাংশই এই জিনিসটি সম্পর্কে অবগত। যাইহোক, ত্বকের টানটান ভাব বৃদ্ধি করতে এবং বয়স্ক ভাব দূর করতে মধু খুবই উপকারী একটি জিনিস।

এখন ব্রণের দাগ দূর করতেও একইভাবে মধু গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। প্রথমে আপেলকে ভালোভাবে পেস্ট করবেন এবং এরপর কয়েক ফোটা মধু উক্ত পেস্টে যোগ করে ব্রণের দাগগুলোতে লাগান। এভাবে ঘন্টা খানেক মুখের দাগগুলোতে লাগিয়ে রাখুন। এরপর পানি দিয়ে মুখ ধৌত করে ফেলুন। এভাবে সপ্তাহে ৪-৬ বার উক্ত পদ্ধতি অনুসরণ করুণ। আশা করি, খুব সহজেই আপেল ও মধুর মিশ্রণ দ্ধারা ছেলেরা তাদের মুখের দাগ দূর করতে পারবে।

নোট: মুখ ধৌত করার সময় চেষ্টা করবেন ঠান্ডা পানি দ্ধারা মুখ ধৌত করার।

ফেসওয়াশ ব্যবহার করা

সর্বপরি, ছেলেদের মুখের ব্রণের দাগ দূর করার উপায় হিসেবে বাজারে থাকা বিভিন্ন রকমের ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে পারেন। তবে কারেক্ট ফেসওয়াশ পাওয়া বা সিলেক্ট করা একজন নতুনের নিকট বেশ কষ্টসাধ্য। যে বিধায় নিম্নে আমি সর্বমোট ১০টি ভালো ও কার্যকারী ফেসওয়াশ এর নাম উল্লেখ করেছি। ব্রণের দাগ দূর করার জন্য ছেলেদের ফেসওয়াশ সমূহ হলো-

  • ফেয়ার এন্ড লাভলি ম্যাক্স ফেয়ারনেস ফেস ওয়াশ।
  • নিউট্রেজেনা ম্যান স্কিন ক্লিয়ারিং একনি ওয়াশ ফেস ওয়াশ।
  • হিমালয়া ইন্টেনস অয়েল ক্লিয়ার লেমন ফেস ওয়াশ।
  • হিমালয়া পাওয়ার গ্লো লিসোরাইস ফেস ওয়াশ।
  • ভেসলিন ম্যান হোয়াটেনিং ফেস ওয়াশ।
  • পন্ডস ম্যান এনার্জি চার্জ ফেস ওয়াশ।
  • Oxy Perfect ফেসওয়াস।
  • গার্নিয়ার পাওয়ারলাইট ইন্টেন্সিভ ফেয়ারনেস ফেস ওয়াশ।
  • লোরিয়েল ম্যান এক্সপার্ট হায়েড্রা এনার্জিক স্কিন এওয়াকেনিং আইসি ক্লিনসিং জেল।
  • অরিফ্লেম নর্থ ফর ম্যান এক্টিভ ফেয়ারনেস ফেস ওয়াশ।

মূলত উপরের যে ১০টি ফেসওয়াশ এর নাম এখানে তুলে ধরা ;হয়েছে, আশা করি একজন ছেলে বা ব্যক্তি ‍উক্ত দশটি ফেসওয়াশ এর মাধ্যে যেকোনো একটি দ্ধারা বেশ চমৎকারভাবে উপকৃত হতে পারবে।

সর্বপরি, উপরোক্ত উপায়গুলোই হলো আজকের আর্টিকেলের মূল প্রাধান্য বিষয়। সুতরাং আমরা ছেলেদের মধ্যে যদি কোনো ব্যক্তির মুখে ব্রণ হয় এবং পরোক্ষণে ব্রণের সে দাগ রিমুভ করতে চাই, তাহলে উপরোক্ত দেওয়া উপায়গুলো অনুসরণ করার মাধ্যমে বেশ চমৎকারভাবে উপকতৃ হতে পারবেন।

ছেলেদের মুখের ব্রণের দাগ দূর করার উপায় নিয়ে শেষ কথা

ছেলেদের মুখের ব্রণের দাগ দূর করার উপায় নিয়ে শেষ কথা
ছেলেদের মুখের ব্রণের দাগ দূর করার উপায় নিয়ে শেষ কথা

ব্রণ বিভিন্ন কারণে আমাদের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ও অঙ্গ-প্রতঙ্গে হয়ে থাকে। আর এর থেকে রেহাই পেতে আমরা করে থাকি নানা পদ্ধতি অ্যাপ্লাই। তবে ব্রণ ভালো হলেও দিন শেষে আমাদের মুখ-মন্ডল সহ শরীরের নানা অঙ্গে থেকে যায় সেই ব্রণের কালো দাগগুলো। আর সেই দাগ দূর করার স্বার্থে আমরা অনেকে অনেক রকম ক্রিম সহ নানা রকম পদ্ধতি অবলম্বণ করে থাকি। তবে যাইহোক, দিন শেষে আমরা সবাই চাই প্রাকৃতিক উপায়ে সেই দাগগুলোকে কমিয়ে বা রিমুভ করতে। আর তারই প্রেক্ষিতে আজকের আর্টিকেলে আমরা দেখেছি যে, কিভাবে ছেলেদের ব্রণের দাগ দূর করতে হয়। এছাড়াও ছেলেদের ব্রণের দাগ দূর করার উপায় জানার পাশাপাশি এর আনুসাঙ্গিক অন্য অনেক ধরণের তথ্য নিয়ে আলোচনা করেছি।  উপরে সর্বমোট ৮টি পদ্ধতি বা উপায় নিয়ে আলোচনা করেছি। যা দ্ধারা বিশেষ করে ছেলেরা বেশ চমৎকারভাবে উপকৃত হতে পারবে। সর্বপরি বলা চলে যে, ছেলেদের মুখের ব্রণের দাগ দূর করার উপায় সম্পর্কে জানতে  পেরে আপনারা বেশ চমৎকারভাবে উপকৃত হতে পেরেছেন।

ছেলেদের মুখের ব্রণের দাগ দূর করার উপায় সম্পর্কে আরো জানতে

BanglaTeach
E-HaqDigital Marketer at- BanglaTeach

E-Haq is the founder of BanglaTeach. He is expertise on Education, Health, Financial, Banking, Religious and so on.

Leave a Comment