ইসলামিক কষ্টের এস এম এস

BanglaTeach
E-Haq
Digital Marketer at- BanglaTeach

E-Haq is the founder of BanglaTeach. He is expertise on Education, Health, Financial, Banking,...

Sharing is caring!

ইসলামিক কষ্টের এস এম এস
ইসলামিক কষ্টের এস এম এস

ইসলামিক কষ্টের এসএমএস বা দুঃখ-বেদনার এসএমএস নিয়ে বর্তমানে ইন্টারনেটে প্রচুর পরিমাণে সার্চ হয়ে থাকে। যে বিধায় আজকের আর্টিকেলে আমরা ৭০-৮০+ ইসলামিক কষ্ট, বেদনা, দুঃখের এসএমএস তুলে ধরেছি। যেগুলো আপনারা ফেজবুক সহ অন্য সকল প্লাটফর্মগুলোতে ব্যবহার করতে পারেন। ( জিহাদ নিয়ে উক্তি সহ সুন্নত নামাজ পড়ার নিয়ম সম্পর্কে জানুন )

মূলত যে সকল পাঠকগণ তাদের অভ্যন্তরীণ কষ্টগুলো ইসলামিক এসএমএসের মাধ্যমে বাহ্যিকভাবে প্রকাশ করতে চায়, তাদের জ্ঞাতার্থেই আজকের আর্টিকেল। ইউজারদের চাওয়া এবং পাওয়াকে সামনে রেখেই নিম্নে অনেকগুলো এসএমএস তুলে ধরেছি। যাইহোক, আলোচনা বিলম্ব না করে চলুন ইসলামিক কষ্টের এসএমএস পড়া যাক। (ইমামের পিছনে নামাজ পড়ার নিয়ম নিয়ে বিস্তারিত জানুন )

ইসলামিক কষ্টের এসএমএস সমূহ

ইসলামিক কষ্টের এসএমএস সমূহ

ইসলামিক কষ্টের এসএমএস এর পাশাপাশি আমরা আনুসাঙ্গিক অন্য সকল ধরনের ইসলামিক এসএমএস সম্পর্কে জানবো। প্রথমে সার্বিকভাবে ইসলামিক কষ্টের এসএমএসগুলো কাভার করে ধারাবাহিকভাবে এরপর আমরা উপদেশমূলক, অনুরাগ, আদেশ ইত্যাদি ধরনের ইসলামিক এসএমএস সম্পর্কে জানবো। তাহলে চলুন মূল আলোচনায় প্রবেশ করা যাক।

মনের মানুষেরকাছে বেশি আবেগ প্রকাশকরতে যেওনা। কেননা,সে তোমার এই দুর্বলতারসুযোগ নিয়ে কষ্টদিতে পারে।
কাওকে কষ্ট দিয়ে,সুখে থাকার আশা করাটা বোকামি ছারা আর কিছুই নয় মনে রেখো, এর থেকেও প্রখর কষ্ট তোমার জন্য অপেক্ষা করছে
জীবনটা খুবই সাধারণ,তুমি তাই পাবে যা তুমি দিবে। সম্মান চাও,তবে সম্মান দাও। মনোযোগ প্রত্যাশা করলে,আগে মনোযোগী হও। ভালোবাসা চাও তো ভালোবাসা দাও।
মায়া' আর 'প্রেম' এক না। প্রেমের মধ্যে মায়া আছে। কিন্তু মায়ার মধ্যে প্রেম নাও থাকতে পারে। আর তাই, মানুষ মায়া করে কুকুর-বেড়াল পুষে, ওদেরকে ভালোবাসে না। কারন ভালোবাসা নাও থাকতে পারে
কেউ যদি অভিমানে তোমার সাথে কথা না বলে,, বুঝে নিবে সে তোমায় আড়ালে মিস করে.. আর কেউ যদি না দেখে কাঁদে,, বুঝে নিবে সে তোমায় ভীষণ ভালবাসে..!!
কাউকে মন দিয়ে ভালবাসতে যেওনা। ভালবাসলে না পারবে বাচতে, না পারবে মরতে। দুনিয়াতে এর চেয়ে নরক যন্ত্রণা আর কি হতে পারে?
বড় গাছ নড়ে কম। বড় মাছের কাঁটা কম। জ্ঞানী লোকের কথা কম । সৎ লোকের সংখ্যা কম। গুণী লোকের কদর কম। মরা নদীর পানি কম। রাগী লোকের ধৈর্য কম । সুস্থ লোকে খায় কম। মূর্খ লোকের আক্কেল কম। নিষ্ঠুর লোকের মায়া কম। শিশুদের হিংসা কম। সৎ লোকের বন্ধু কম। মেয়ে মানুষের বুদ্ধি কম। নিঃশ্বাসের বিশ্বাস কম|?কাউকে ভালোবাসার জন্য একটা শক্তিশালী হৃদয়ের প্রয়োজন । আর কারো দ্বারা আঘাত পাওয়ার পরও তাকে ভালোবেসে যাওয়ার জন্য লাগে তারচেয়েও শক্তিশালী হৃদয় । যা অনেকের থাকে না । মৃত্যর যন্ত্রণার চেয়ে বিরহের যন্ত্রণা যে কতো কঠিন, কতো ভয়ানক তা একমাত্র আমি অনুভব করতে পারি ।
প্রতিটা মানুষের জীবনে সময়ের মূল্য অনেক বেশি। এটি সবার মুখে মুখেই শোনা যাই।যখন এটি আমরা বাস্তবে উপলদ্ধি করি তখনই বোঝা যাই, আসলেই মানুষের জীবনে সময়ের মূল্য কতটুকু বেশি?আমি নিজেই এটাকে বাস্তবে উপলদ্ধি করলাম এবং বুঝলাম সময়কে কতটুকু গুরুত্ত দেওয়া উচিত?তাই সময়ের কাজ সময়ে করে নেওয়া ভাল...
⌠জীবন হলো একটা কঠিন পরীক্ষার নাম।যে পরীক্ষায় প্রত্যেকের জন্য প্রশ্নপত্রটা ভিন্ন ভিন্ন।তাই অন্য কাউকে অন্ধভাবে নকল করতে গেলে পরীক্ষায় ফেইল করাটা স্বাভাবিক⌡-
"তোমার যা নেই তার পেছনে ছুটো।যা আছে তা নষ্ট করো না।মনে রেখো আজকে তোমার যা আছে।গতকাল তুমি সেটার পেছনে ছুটে ছিলে----
এই পৃথিবী কখনো খারাপ মানুষের খারাপ কর্মকাণ্ডের জন্য ধংস হবেনা.যারা খারাপ মানুষের এসব কর্ম-কাণ্ড দেখেও কিছু করেনা তাদের জন্যই ধংস হবে!-
ত্রুকে যদি একবার ভয় করো,তবে বন্ধুকে অন্তত দশবার ভয় করো।কারণ বন্ধু যদি কোন সময় শত্রু হয়,তবে সে হবে সবচেয়ে নিষ্ঠুরতম শত্রু।-
পাপের কাজ করে লজ্জিত হলে পাপ কমে যায়, আর পুণ্য কাজ করে গর্ববোধ করলে পুণ্য বরবাদ হয়ে যায়....-
জীবনের রাস্তায় একা একা হেঁটে যাওয়া খুব একটা কঠিন কাজ নয়।কিন্তু,কারো হাত ধরে অনেক টা পথ হেঁটে গিয়ে,সেখান থেকে একা একা ফিরে আসা খুব বেশি কঠিন।.
পৃথিবীতে আসার সময় প্রতিটি মানুষই একটি করে আলাদিনের প্রদীপ নিয়ে আসে, কিন্তু খুব কম মানুষই সেই প্রদীপ থেকে ঘুমন্ত দৈত্যকে জাগাতে পারে....
কারো সুখের জন্য ভালো পেনসিল না হতে পারো।কিন্তু ভালো রাবার হও,তার দুঃখ মুছার জন্য।
মানুষ মানুষের জন্য,মানুষকে ভেবোনা বাজারের পন্য,হয়তো ভুল করে সে তোমায় বেসেছে ভালো,তাই বলে তুমি নিভিয়ে দিওনা,তার জীবনের আলো.
যখন ভালবাসা তোমার কাছে অজানা তখন বুঝবেনা সুখ কী?যখন কাউকে ভালবাসবে তখন বুঝবে ব্যাথা কী?যখন তুমি ভালবাসা হারিয়ে ফেলবে তখন বুঝবে জীবন কী
বিশাল হৃদয় দিয়ে"কি হবে"যদি দুঃখ না বোঝে"ফেন্ডশিপ করে কি হবে"যদি মূল্য না দাও" ভালবেসে কি হবে"যদি ভালবাসার মানুষকে"কষ্ট দাও. তাই ভালবাসার মানুষকে কষ্ট দিও না ।
মন দেখে ভালবেসো ধন দেখে নয় গুন দেখে প্রেম করো রুপ দেখে নয় রাতের বেলায় স্বপ্ন দেখো দিনের বেলায় নয় এক জনকে ভালবেসো দশ জনকে নয়
কাউকে যদি ভালোবাসতে হয় তাহলে হৃদয় থেকে ভালোবাসুন। নিজের স্বার্থের জন্য তার সাথে ভালোবাসার অভিনয় করবেন না। আপনার অভিনয় হয়তো একটি মানুষের জীবনটাই এলোমেলো করে দেবে ।
কে তোমার সব চেয়ে ভাল বন্ধু সেটা তখনই বুঝবে, যখন তোমার কাউকে খুব প্রয়োজন হবে !!!
কারো সাথে বন্ধুত্ব করার আগে তাকে পরীক্ষা করে নেয়া উচিত, সে বন্ধুত্বের যোগ্য কিনা।
প্রত্যেক মানুষের মাথায় এক বা একাধিক টেকনিকেল সমস্যা থাকে । আর তাই বলে এটা ভাবার কোনো অবকাশ নেই যে সে পাগল ।
পরের প্রশংসা পেতে হলে, অপরকে প্রশংসা করতে হয়
শেষবারের মতো আরেকবার চেষ্টা করে দেখি -পৃথিবীতে এই চিন্তাটাই অনেক সফল মানুষের জন্ম দিয়েছে।
এমন জীবন তুমি করিও গঠণ মরিলে হাসিবে তুমি কাঁদিবে ভূবন
ভাগ্য তোমার হাতে নেই, কিন্তু সিদ্ধান্ত তোমার হাতে । ভাগ্য সিদ্ধান্ত নেয় না, কিন্তু তোমার সিদ্ধান্তই তোমাকে ভাগ্য এনে দিতে পারে ৷
পৃথিবিতে বেচে থাকতে হলে প্রতি পদে পদে মায়াকে তুচ্ছ করতে হয়।
ভালোবাসা বদলায় না, বদলে যায় মানুষগুলো। অনুভূতি হারায় না, হারিয়ে যায় সময় গুলো।
বোকা মানুষ গুলো হয়তো অন্যকে বিরক্ত করতে জানে। কিন্তু কখনও কাউকে ঠকাতে জানে না।
প্রজাপতির পিছনে ছুটে সময় নষ্ট করো না। "ফুলের চাষ করো"। দেখবে প্রজাপতিই তোমার পিছনে ছুটবে।
কারো সাথে বন্ধত্ব করারর আগে তাকে পরিক্ষা করে নেয়া উচিত, সে বন্ধুত্বর যোগ্য কি না.।
দুঃখ কমে যায় ভাগ করে নিলে,,, অভীমান চলে যায় ভালবাসা দিলে,,, কষ্ট বেড়ে যায় ভুল বুঝলে,,, হ্রদয় বেঙ্গে যায় আঘাত দিলে....
যদি আপনার কাছে কেউ কিছু বলতে চায়, তবে মনোযোগ দিয়ে তার কথা গুলো শুনুন। কিছু দিতে পারেন বা না পারেন, আপনার আন্তরিকতা তার হৃদয়কে স্পর্শ করবে।
কোনোকিছু আমাদের কাছে সবচেয়ে বেশি মূল্যবান মনে হয় দুটি সময়ে। সেটি অর্জন করার পূর্বে এবং হারিয়ে ফেলার পর। এই দুইয়ের মধ্যেবর্তী সময়ে তার মূল্য মাথায় রাখুন। তাকে হারিয়ে ফেলার সম্ভাবনা কমে যাবে।
"ভুল ভ্রান্তি দিয়েই মানুষের জীবন। সেই ভুলকে প্রাধান্য দিয়ে বাকি জীবনে অশান্তি ডেকে আনবার কোন মানে হয় না"।
সাফল্য সুখের কারন নয় বরং সুখই সাফল্যের চাবিকাঠি। আপনি যাই করুন না কেন, তা যদি মন থেকে ভালোবেসে খুশিমনে করতে পারেন, তবে সাফল্য আসবেই।
"রাস্তায় ঘেউ ঘেউ করা সব কুকুরকে তুমি যদি ঢিল মারতে যাও তাহলে তুমি তোমার গন্তব্যেই পৌঁছাতে পারবে না"।
সুখের পেছনে ছুটতে নেই।সুখ প্রজাপতির মত।ধরতে গেলে ধরা দেয়না কিন্তু চুপ করে থাকলে ঠিকই গায়ে এসে বসে।।
এক ফোটা বিষ' অনেক পানি নষ্ট করতে" ছোট্ট একটা পাথর' একটা গ্লাস ভাঙ্গতে পারে" আর ছোট্ট একটা মিথ্যা কথা" পুরো Life টা নষ্ট করে দিতে পারে"
অনেক জিনিস অন্যের ভাগে পড়ে যা আমার ভাগে পড়ে না , তাই নিয়ে দুঃখ করে লাভ নেই । কেননা আমার ভাগে যা পড়েছে তা অন্যের ভাগে হয়তো পড়েনি ।
পাহাড়ের উপর দারিয়ে আকাশ কে যতটা কাছে মনে হয় , আকাশ ততোটা কাছে নয়. ঠিক তেমনি কোন মানুষ কে যতটা আপন মনে হয় , আসলে সে কখনো ততোটা আপন নয়.???
যে যেতে চায় তাকে যেতে দাও আটকিয়ে রাখার চেস্টা করো নাহ। আটকালেই সে ভাব্বে যে তাকে তোমার কোন গতি নেই, তুমি অচল। যে তোমার মুল্য বোঝে নাহ তাকে আটকে রাখার কোন দরকার নেই। AvOid Koro খুশি থাকো। Avoid করার মাঝে ও একটা মজা আছে। বিশ্বাস নাহ করলে একবার ট্রাই করেই দেখো।
মিথ্যাবাদির শাস্তি এই নয় যে তাকে কেউ বিশ্বাস করে না বরং সেই নিজেই কাউকে বিশ্বাস করতে পারে না।
জীবন হলো একটা কঠিন পরীক্ষার নাম। যে পরীক্ষায় প্রত্যেকের জন্য প্রশ্নপত্রটা ভিন্ন ভিন্ন। তাই অন্য কাউকে অন্ধভাবে নকল করতে গেলে পরীক্ষায় ফেইল করাটা স্বাভাবিক।
বিপদ যত বড় হোক না কেন, তাকে চিরস্থায়ী মনে করো না ধৈর্য ধরে স্রস্টার কাছে বিপদ থেকে মুক্তির প্রার্থনা করো।
“মাথা ছাড়া যেমন মানব দেহের কথা কল্পনা করা যায় না, তেমনি সবর বা ধৈর্য ছাড়া কোনো কিছুই সঠিক হয় না।”
মিথ্যা বললে তা তোমার মনেই রয়ে যায়। মনকে খোঁচাতে থাকে। সত্য বলার সবচেয়ে বড় সুবিধা হলো তুমি কি বলেছো তা আর তোমার মনে রাখার প্রয়োজনীয়তা নেই।
পৃথিবীতে মাত্র দুইটি গুনের সমন্বয় দেখা যায়- যোগ্যতা ও অযোগ্যতা। আর, পৃথিবীতে মানুষ ও দেখা যায় দুই রকম- যোগ্য এবং অযোগ্য
জীবনে আশা করা, কারো প্রতি আস্থা রাখা ও নিজের ক্ষমতার উপর বিশ্বাস করা থামিও না। কিছু খারাপ স্মৃতির জন্য এই তিনটা থেকে বিরত থাকলে জীবনে সুখ খুঁজে পাওয়া যায় না।
যে ব্যক্তি তোমার চাইতে বেশী জানে,তার নিকট থেকে জ্ঞান আহরণ কর ।আর অজ্ঞদের কিছু শেখাতে সচেষ্ট হও।
"জীবনের সবচেয়ে বড় জয় হলো এমনকিছু করে দেখানো; যাসবাই ভেবেছিল তুমি কখনোইকরতে পারবেন না!"
শত সুন্দরের মাঝে ছোট ছোটঅসুন্দরগুলো যেমনআমাদের কাঁদায়,তেমনি শত অসুন্দরের মাঝেছোট ছোট সুন্দরগুলাইআমাদের বাঁচতে শেখায়....
মানুষ যখন কারো প্রশংসা করে তখনখুব কম লোকেই তা বিশ্বাস করে,কিন্তু যখন কিনা কারো বদনামকরা হয় তখন প্রায় সবাইতা বিশ্বাস করে।

ইসলামিক দুঃখের এসএমএস

ভুলতে পারি না তোমার বাণী.দেখিয়েছো যা বদরের ঐ যুদ্ধ ক্ষণে!ভুলতে পারি না তোমার সেই শিক্ষা যা শিখিয়েছো তুমি হেরারি ঐ গুহায়!
মনটা আজ ফিরে আয়*আল্লাহুর ভালোবাসার দিকে*দেখরে আজ চাহিয়া শান্তি নেই পৃথিবীতে*মনটা আজ পড়েছে ধনোসম্পদের পিছনে
যে সব মেয়েরা খারাপ পোশাক পরে ছেলেদের মনটা খারাপ করে।সেই সব মেয়েদের রোজ হাশরের দিন আগুনের পোশাক পুরানো হবে।
হে আল্লাহ আপনি আমাকে ওই কাজ থেকে দূরে রাখুন।যে কাজ আপনার পছন্দ নয়।আর আমাকে সেই কাজের সন্ধান দিন।যে কাজ আপনি আর রাসুল (সঃ) পছন্দ করেন।
মুসলিম নারি তুমি দিয়ো না কপালে টিপ।ভুলে যেও না তুমি আল্লাহর সৃস্টির সেরা জিব।টিপ দিলে যদি হয় তোমার রুপের জয়।মনে রেখো এটা হিন্দু নারির পরিচয়
যদি কাঁদতে চাও।তবে নামায পরে আল্লাহর দরবারে কাদ।কারণ তোমার চোখের পানির মুল্য কেও না দিলে ও।আল্লাহ তোমার প্রতি চোখের পানির ফুটা অশ্রর অনেক মুল্য দেবেন।
ওই দিনকে ভয় কর।যে দিন বাবা ছেলেকে চিনবে না।মা মেয়েকে চিনবে না।সামি বউকে চিনবে না।রাসুল (সঃ) চাড়া আর কেও আপন থাকবে না।.
রাসুল (সঃ) বলেছেন।যার মনে নামাজ পরার aggroho নাই।তার অন্তরে ঈমান নেই।আর যে ইচ্চে করে নামাজ ছেড়ে দিলো।সে জেনো প্রকাশসে কুফুরি করলো।
আল্লাহ বলেন।মানুষ যখন দুঃখ কষ্ট পাই।তখন শুধু আমাকে ডাকে।যখন আমি মুক্ত করে দেই।তখন সে আমাকে ভুলে যায়।

ইসলামিক বেদনার এসএমএস

হে আল্লাহ করেছি অনেক পাপ।তাই তোমার কাছে চাইতেছি মাফ।তুমি আমার রব।মাফ করে দাও সব।জানি তুমি দয়াবান।তাইতো সবাই বলে তোমাই রহিম রহমান।..
রাসুল ( সঃ) বলেছেন।আল্লাহর ভয়ে তুমি যা কিছু ছেড়ে দিবে।তিনি তোমাকে তার ছেয়ে ও উত্তম কিছু অবশ্যইই দান করবেন।যা তুমি কল্পনা ও করনি।..
যে ব্যক্তি পৃথিবিতে তার পাপের জন্য।আল্লাহ এর কাছে কেঁদে কেঁদে মাপ চাই।মহান আল্লাহ তাকে হাসরের ময়দানে কাঁদতে দিবেন না।.
এক জন নারি যদি বেপরদায় চলে।তবে ৪ জন পুরুষ দোযকে যাবে।১.বাবা।২.বড় ভাই।৩.সামি।৪.বড় ছেলে।..
কোনদিন দেখিনি তোমায়।শুধু শুনেছি তোমার নাম।পড়ছি তোমার জীবন কাহিনি।করেছি তোমায় bisshas।তোমায় ভালবেসে করিনি ভুল।তুমি যে আমার প্রিয় নবি।মোহাম্মাদ রাসুল।..
রাসুল (সঃ) বলেছেন।তোমরা কোন মেয়েকে গালি দিও না।গালি দিলে সেই গালি আমার গায়ে এসে পরে।কারণ আমি রাসুল (সঃ) নিজে ও এক জন মেয়ের বাবা। (আল-হাদিস।..
রাসুল (সঃ) বলেছেন।যখন তুমি নামাযে দারাবে তখন মনে করবে।সামনে আল্লাহ।পিছনে আয্রাইল।ডানে জান্নাত।বামে জাহান্নাম।আর পায়ের নিচে ফুলসিরাত।.
তোমরা ওই ঘরকে ভয় কর।যে ঘরে তুমি ছাড়া কেউ থাকবে না।অন্ধকার ছাড়া আল হবে না।তোমাকে রেখে চলে যাবে আপনজনেরা।তোমার ঈমান আমল ছাড়া কিছুই যাবে না।..
দিবা নিশি পর নামায।করিও না ভুল।নামায পরে পারি দিবে।ফুলসিরাতের পুল।যখন তুমি পরবে নামায।লাগবে অনেক ভাল।নামায তোমায় এনে দিবে।জান্নাতের আলো।..
আল্লাহ হল সবার বড়।রুজ সকালে কুরান পর।কিসের জামেলা কিসের কাজ।সময় মত পর নামায।এবাদতে থাকো মাসগুল।খুশি হবেন আল্লাহ ও রাসুল।.
ইসলামিক মেসেজ |ইসলামিক উপদেশ এস এম এস | ইসলামিক ছন্দ | হাদিস এর এস এম এস|ইসলামিক ইমেজ |ইসলামিক পিকচার |ইসলামিক এস এম এস
নামায যার গাড়ি।জান্নাত তার বাড়ি।আল্লাহ যার রব।নবি তার সব।ইসলাম যার dhormo।ইবাদত তার kormo।
যে ব্যক্তি জিবনে ৭০০০০ হাজার বার কালেমা পরবে।তার জন্য জান্নাত ওয়াজিব হয়ে যাবে।
রাসুল (সঃ) বলেছেন।যে ভুল করে সে মানুষ।যে ভুলের উপর স্থির থাকে সে শয়তান।আর যে ভুল করার পর আল্লাহর কাছে ক্ষমা চাই সেই মুমিন।.
হে নারী ! তুমি মা,তোমায় শ্রদ্ধা করি। তুমি বোন,তোমায় সম্মান করি। তুমি বউ,তোমায় ভালবাসি। তুমি মেয়ে,তোমায় স্নেহ করি। তুমি যদি পর্দায় না থাকো, তোমায় ঘৃনা করি।
গান বাজনা Delete কর,, নামায রোজা Save কর,, খারাপ পোস্ট Cut কর,, ভাল পোস্ট Share কর,, ভিন্ন ধর্মকে Respect কর,, ইসলাম ধর্ম Open কর..!!
জীবনে ছয়টি জিনিস কখনো ভেঙ্গে ফেলো না? ১=মন.২=সম্পর্ক.৩=ভরসা.৪=ভালোবাসা.৫=বিশ্বাস.৬=বন্ধুত্য.সঠিক মনে করলে জানিয়ে দাও
জান্নাত লাভ করার দোয়া সবাই পড়ুন: আল্লাহুম্মা ইন্নী আসআলুকা রিদ্বা কাওয়াল জান্নাত, নিজে পড়ুন এবং বলুন
যে মেয়ে মাথায় কাপড় ছাড়া চলবে, কিয়ামতের দিন তার এক একটা চুল সাপ হয়ে তাকে কামড়াবে, [আল-হাদিস]
জানি পুলিশ করবে হামলা,হবে জেল মামলা|জানি বুলেট পর্র্বে বুকে,তবুও মোরা দারাবো রুখে|দিবো লক্ষ প্রাণ,তবুও"কোরাআন"হোক সংবিধান শেখ আব্দুর রহিম
গেল রাত এল দিন, ফিরে এল জুম্মার দিন। ஜஜ জুম্মার সময় করবেনা লসস, জুম্মার নামাজ গরীবদের হজ্জ। ஜஜ জলদি যাও নামাজ পরতে, গুরুত্ত দাও এই দিনটাকে। ஜஜ হেপ্পী জুম্মাহ মোবারক টু মাই অল ফ্রেন্ড।

ব্যথা মূলক ইসলামিক এসএমএস

“তোমার রাগ-ই প্রমান করে যে তুমি কোন জিনিস তোমার নিজের মত করে করতে চাও এবং আল্লাহ যেভাবে চান সেভাবে তুমি চাওনা” -ইমাম গাজ্জালী (র) ।
ফুল" কে ভালবাসো পাবে শুধু ঘ্রান । "ইসলাম" কে ভালবাসো পাবে শুধু সম্মান! "রাসূল"কে ভালবাসো হবে আদর্শবান! "আল্লাহা" কে ভালবাসো পাবে দু-জাহান!
একজন লজ্জাশীল নারী তার মা বাবার জন্য গর্ব॥ তার ভাইয়ের জন্য সম্মান॥ স্বামীর জন্য সম্পদ॥ তার সন্তানদের জন্য আদর্শ মা॥
ফুলের সুবাস চাঁদের হাসি, নামাজ আমি ভালবাসি। নদীর ঢেউ,পাখির গান, কোরআন আমার সংবিধান। সবুজ শ্যামল স্বপ্নে ঘেরা, ইসলাম ধর্ম সবচেয়ে সেরা।
একটি মশার ভয়ে যদি অপনি মাশারির ভিতরে ঢুকতে পারেন , তাহলে দোজকের আগুনের ভয়ে কেন মসজিদে যেতে পারবেন না ??"
যে আল্লাহর উদ্দেশ্যে বিনয়ী হয় , আল্লাহ তার মর্যাদা বাড়িয়ে দেন। -- মিশকাত ।
সর্বোত্তম জীবন পদ্ধতি হচ্ছে মুহাম্মদ সাঃ প্রদর্শিত পদ্ধতি। -- সহীহ মুসলিম ।
ফুলের সুবাস চাঁদের হাসি নামাজ কে আমি ভালবাসি, নদীর ঢেউ পাখির গান কুরআন আমার সংবিধান, সবুজ শেমল রুপে ঘেরা ইসলাম ধর্ম সবার সেরা।
ধংস তার জন্য যার আজকের দিনটা গতকালের চেয়ে উত্তম হলো না..!! - আল কোরআন ।
গান বাজনা ডিলিট কর,, নামায রোজা সেভ কর,, খারাপ পোস্ট কাট কর,, ভাল পোস্ট শেয়ার কর,, ভিন্ন ধর্মকে রেস্পক্ট কর,, ইসলাম ধর্ম ওপেন কর..!!
১,২,৩, নামাজ পড়ুন প্রতিদিন । ৪,৫,৬, নামাজ পড়তে নেই ভয় । ৭,৮,৯, নামাজে আল্লাহ খুশি হয় । ১০,১১,১২, তাই নামাজ পড়তে পার ।
"জীবনের চাইতেও বেশী" "ভালবাসি যারে" "একবারও দেখিনাই তারে" "জানিনা আমার ভালবাসায়" "আছে কি ভুল" "একবার হলেও দেখা দাও" "হে প্রিয় রাসূল (সঃ)" ।
আলিম হব, জাহিল থাকবনা। দাড়ি রাখব, মিছা কথা বলব না। মিছামিছি হাসবনা, ঈমান ঠিক রাখব। মসজিদ আবাদ করব, জ্বলে উঠুন ঈমানি শক্তিতে।
আমরা একমাত্র তোমারই ইবাদত করি এবং শুধুমাত্র তোমারই সাহায্য প্রার্থনা করি।-(আল কুরআন)।
যেই মন তোমাকে ঘর থেকে মসজিদে নিতে পারে না সেই মন তোমাকে কি করে কবর হতে জান্নাতে নিবে বল।
সামনে আসছে রোজা, হালকা কর গোনাহের বোঝা,যদি কর পাপ চেয়ে নাও মাফ, এসো নিয়ত করি,আজ থেকে সবাই পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ি ...
হযরত মোহামমদ (সাঃ) বলেছেন২টা জিনিশ কাছে রাখলে কোন দিন বিপদ আসবেনা ১=কোরআন ২=হাদিস , ইহা ১০০% সত্য।
১ টা দিন, ১ টা রাত। আজকে হলো শবে-বরাত। সকলকে দাও নামাজ এর দাওয়াত। আল্লাহ কে ডেকো সারা রাত। মাফ হবে সকল পাপ। তা হলে পাবে জান্নাত। “শুভ শবে-বরাত”।

ইসলামিক কষ্টের এসএমএস নিয়ে শেষ কথা

ইসলামিক কষ্টের এসএমএস নিয়ে শেষ কথা

উপরের বিস্তারিত ভাবে অনেকগুলো ইসলামিক কষ্টের এসএমএস তুলে ধরা হয়েছে। আশা করি যে সকল পাঠকগণ এরকম ইসলামিক কষ্টের স্ট্যাটাস জানতে চেয়ে গুগল সার্চ করেছেন, আপনারা ব্যাপকভাবে উপকৃত হতে পেরেছেন।

তবে এখানে বলে রাখা ভালো যে, যেহেতু এখানে উল্লেখিত প্রায় সবগুলো এসএমএস ইন্টারনেট থেকে নেওয়া তাই, যদি কোনো কারণে উক্ত উদ্ধুতিগুলোর মধ্যে কোনোটি নন-ইসলামিক হয়ে থাকে, তাহলে ক্ষমা দৃষ্টিতে দেখে থাকবেন।

মূলত পাঠকদের চাহিদা পূরণের উদ্দেশ্যেই এখানে ৭০-৮০+ ইসলামিক স্ট্যাটাস তুলে ধরা হয়েছে। যার নাম টাইটেল অনুযায়ী দেওয়া হয়েছে ইসলামিক কষ্টের এসএমএস। যাইহোক, সর্বপরি, আশা করি আপনারা যারা যারা ইসলামিক কষ্টের এসএমএস পড়তে চেয়েছেন, সেই সকল পাঠকগণ উপরোক্ত এসএমএসগুলো পড়ে উপকৃত হতে পারবে।

ইসলামিক কষ্টের এসএমএস সম্পর্কে আরো জানতে

BanglaTeach
E-HaqDigital Marketer at- BanglaTeach

Leave a Comment