ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব ২০২২

BanglaTeach
E-Haq
Digital Marketer at- BanglaTeach

E-Haq is the founder of BanglaTeach. He is expertise on Education, Health, Financial, Banking,...

Sharing is caring!

ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব
ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব

ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব, তা নিয়ে নতুনদের মধ্যে রয়েছে নানা রকম মিস-কনসেপ্ট। রয়েছে নানা রকম মতানৈক্য এবং জিজ্ঞাসা। আবার অনেকের মধ্যে তা নিয়ে রয়েছে নানা রকম ভুল সিদ্ধান্ত তথ্য তথ্য। সর্বপরি, এসব সংমিশ্রিত প্রশ্নে উত্তর দেওয়ার জন্যই আজকের আর্টিকেল তথা ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব।

সাধারণত আমরা যারা নতুন হিসেবে মার্কেটিং জগতে আসতে চাই এবং খুব অল্প সময়ের মধ্যে অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে চাই, তাদের অধিকাংশের ধারণা হয়তো বা একটি ভালো ও কোয়ালিটিফুল একটি কোর্স করলে আমরা খুব রাতারাতি ইনকাম জেনারেট করতে সক্ষম হবো। আর নতুনদের জন্য উক্ত মিসকনসেপ্ট থাকাটাই হলো স্বাভাবিক।

তাহলে নতুনরা কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং শিখবে? যদি এটাই নতুনদের জন্য মূল সমস্যা হয়, তাহলে আশা করি আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে একজন সদ্য অগ্রসর হওয়া নতুন ফ্রিল্যান্সার সঠিক একটি গাইড-লাইন পাবে। আলোচনা অতিরিক্ত বিলম্ব না করে চলুন জেনে নেওয়া যাক, ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব সে সম্পর্কে।

ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব ২০২২-২০২৩

ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব ২০২২-২০২৩

যদিও ইতিমধ্যে আমাদের সাইটে ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে নানা রকম প্রশ্নে উত্তর সহ আনুষাঙ্গিক অনেক বিষয় কাভার করা হয়েছে। তারপরও ফ্রিল্যান্সিং কোর্স নিয়ে নতুনদের মধ্যে থাকা ভুল ধারণা ও সঠিক গাইডলাইনের জন্যই পার্ট বাই পার্ট আর্টিকেল লেখা হচ্ছে।

এখন মূল প্রশ্নে আসা যাক, ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব? দেখুন বর্তমান ২০২২-২০২৩ সালে এসে আপনাকে ফ্রিল্যান্সিং এর যেকোনো ধরনের কোর্স কিংবা স্কিলড বাড়ানোর জন্য আপনাকে এক পয়সাও খরচ করতে হবে না! অবাক হলেন? হ্যাঁ, বিষয়টি সত্যিই তাই। প্রথমে আপনাকে ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ সমূহ থেকে যেকোনো একটি টপিককে আপনি সিলেক্ট করে নিবেন আপনার ফ্রিল্যান্সিং এর ক্যারিয়ারের জন্য। এরপর সেই টপিক অনুযায়ী আপনাকে জাস্ট গুগল, ইউটিউব, ফেসবুক ও ইন্টারনেটে থাকা ওপেন সোর্স থেকে ডাটা সংগ্রহ করে স্ব-উদ্ধেগ্যে সেই নির্দিষ্ট টপিকে দক্ষতা অর্জন করতে হবে। কিন্তু এখন অনেকে পুনরায় প্রশ্ন করতে পারে যে, এখনোও তো সঠিক গাইডলাইনের বিষয়ের অভাব রয়েই গেলে। ভুলে যান একজন মেন্টরের ব্যক্তিগত গাইডলাইনের বিষয়টি। জাস্ট আপনি যখন ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য নির্দিষ্ট টপিকটি সিলেক্ট করে নিবেন, তখন আপনার কাজের জন্য সহায়ক হিসেবে কাজ করবে গুগল, ইউটিউব, ফেসবুক গ্রুপ সমূহ। ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখবো, এটা নিয়ে মোটেও চিন্তা করতে হবে না।

ধরে নিন, আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং সম্পর্কে শিখতে চাচ্ছেন। এবার আপনি গুগলে গিয়ে ডিজিটাল মার্কেটিং লিখে সার্চ দিয়ে এর সকল সাব-ক্যাটাগরি সম্পর্কে জেনে এখান থেকে আপনার মনে ধরা যেকোনো একটি সাব-ক্যাটাগরিকে সিলেক্ট করে নিন। ধরে নিলাম আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং এর ব্লগিং করতে চাচ্ছেন। জাস্ট এবার আপনি পুনরায় গুগলে সার্চ দিন, ব্লগিং করার স্টেপ সমূহ steps of online blogging লিখে। এবার আপনার নিকট একটি বড় শট চলে আসছে ব্লগিং এর স্টেপগুলোর। প্রথম হতে লাস্ট অবধি সবগুলো স্টেপ কয়েকবার পড়ে নিন। প্রথম স্টেপটি নিয়ে ইউটিউবে সার্চ দিন এবং এখান থেকে ভিডিওগুলো দেখে নিন। ধারাবাহিকভাবে সবগুলো স্টেপ এভাবে অনুসরণ করুণ। আশা করি কয়েক মাসের ভিতর আপনি ব্লগিং সম্পর্কে বেশ সম্মুখ একটি ভালো আইডিয়া পেয়ে যাবেন। আর সবচেয়ে বড় ব্যাপারটি হলো ব্লগিং রিলেটেড সকল ফেসবুক গ্রুপগুলোতে আপনি অ্যাড বা জয়েন হয়ে নিবেন। এতে করে আপনি যখনই ব্লগিং নিয়ে খুটিনাটি সমস্যায় পতিত হবেন, ঠিক তখনই সে সমস্ত গ্রুপগুলোতে উক্ত সমস্যা তুলে ধরে পোস্ট করবেন এবং সাথে সাথেই হেল্প পেয়ে যাবেন সিনিয়র কিংবা অভিজ্ঞদের দ্ধারা। এখানে তো আমি শুধু মাত্র ডিজিটাল মার্কেটিং এর আন্ডারে থাকা ব্লগিং income from blooging নিয়ে মাত্র উদাহরণ দিলাম, তেমনিভাবে আপনি ইচ্ছা করলে বর্তমানে চলমান সকল ধরনের ফ্রিল্যান্সিং সেক্টরগুলোতে নিজেকে যোগ্য করে তুলতে পারেন, কোনো রকম টাকা-পয়সা খরচ করা ছাড়াই।

আশা করি উপরোক্ত বিস্তর আলোচনা  থেকে আপনি বোঝতে সক্ষম হয়েছেন যে, ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব সে সম্পর্কে। নিম্নে আরো কিছু টিপস দেওয়া হয়েছে, যেগুলোকে আপনি কাজে লাগিয়ে আরো চমৎকারভাবে উপকৃত হতে পারেন ফ্রিল্যান্সিং শিখার ক্ষেত্রে। এবং একই সাথে কিছু ফ্রি সুযোগের কথাও বলে দিবো, যেখান থেকে একজন ফ্রিল্যান্সার উপকৃত হতে পারে নতুন অবস্থায়। তাহলে চলুন ফ্রিল্যান্সার কোথায় শিখব তাঁর দ্ধিতীয় পার্টে চলে যাই এবং বেশ কিছু ‍সম্ভাব্য প্রশ্নের উত্তর সম্পর্কে জানা যাক।

ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান (Freelancing learning institution)

ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান
ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান

যদিও বর্তমানে জাস্ট গুগলে অথবা ইউটিউবে ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান লিখে সার্চ দিলেই শত রেজল্ট আপনার ডিসপ্লেতে শো করবে, তবে এখানে উল্লেখিত নির্দিষ্ট কোন প্রতিষ্ঠান আপনার জন্য বেস্ট হবে, এটা নিয়ে নিশ্চয় আপনি চিন্তিত । বাংলা ভাষায় যেকোনো ফ্রিল্যান্সিং কোর্স পাওয়া সম্ভব তবে সেই কোর্সের কোয়ালিটি এনসিউর করা অনেক টাপ। যে বিধায় উক্ত আর্টিকেলে আমরা ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান হিসেবে নির্দিষ্টভাবে কোনো একটি সিঙ্গেলকেও ম্যানশন করতে পারলাম না। তবে যদি আপনি ইতিমধ্যে স্পেসিফিক কোনো একটি সেক্টর সিলেক্ট করতে সক্ষম হয়ে থাকেন, তাহলে দয়া করে কমেন্টে তা জানান, অবশ্যই আমরা চেষ্টা করবো, সে টপিকের উপর আপনি কার কোর্স কিংবা ফ্রি ইউটিউব ভিডিও দেখলে উপকৃত হবেন, তাদের ম্যানশন দেওয়ার।

সর্বপরি, ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান খুঁজে নিজেকে কোনো ধোঁকাবাজের খপ্পরে ফেলবেন না। অন্যথায় নিজের সময় ও টাকা নষ্ট হবে। প্রথমে রিকামন্ড করবো, ইউটিউবে থাকা ফ্রি ভিডিওগুলো কাভার করুণ। এরপর চেষ্টা করুণ অ্যাডভান্ড শিখার জন্য কোর্স করতে। আশা করি ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে একটি স্পষ্ট ধারণা পেয়েছেন।

ফ্রিল্যান্সিং শিখতে কত টাকা লাগে?

ফ্রিল্যান্সিং শিখতে কত টাকা লাগে
ফ্রিল্যান্সিং শিখতে কত টাকা লাগে

ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান এর পরের ব্যাপারটি আসে ফ্রিল্যান্সিং শিখতে কত টাকা লাগে? সত্যিকার অর্থে আপনি যদি একজন দৃঢ় আত্মবিশ্বাসী হোন, এবং স্ব-নির্ভরও হয়ে থাকেন, তাহলে ফ্রিল্যান্সিং শিখতে এক টাকাও আপনার লাগবে না। বর্তমানে ইন্টারনেটে ফ্রিল্যান্সিং এর A-Z সমস্ত তথ্য ইন্টারনেটে অহোরোহ। তাই যদি আপনি সে ব্যক্তি হোন, যে নিজের উপর বিশ্বাস অটুট রাখতে সক্ষম, তাহলে দয়া করে আপনি প্রাথমিক অবস্থায় কোনো রকম টাকা খরচ না করে বেশি বেশি ইন্টারনেট করা শিখুন। ফ্রিল্যান্সিং কোর্স ফ্রি বলতে নিজেরা তৈরি না করলে কোনো কিছুই নেই। যেকোনো ছোট একটি বিষয় সম্পর্কে জানতেও ইন্টারনেট সার্চ করুন।

এভাবে গুগল এবং ইউটিউবের সহায়তা নিয়ে পাশাপাশি ফেসবুকের গ্রুপগুলো সহায়তা নিয়ে শেখার মন-মানসিকতা তৈরি করুণ। আশা করি অল্প কিছুদিনের মধ্যে ফ্রিল্যান্সিং জগত সম্পর্কে আপনার বেশ ভালো একটি ধারণা তৈরি হওয়ার পাশাপাশি ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্রতিষ্ঠান, ফ্রিল্যান্সিং শিখতে কত টাকা লাগে এরকম হাজারো প্রশ্নের উত্তর নিজেই পেয়ে যাবেন।

ফ্রিল্যান্সিং কোর্স ইন বাংলাদেশ

ফ্রিল্যান্সিং কোর্স ইন বাংলাদেশ
ফ্রিল্যান্সিং কোর্স ইন বাংলাদেশ

আপনারা যেনে অবাক হবেন যে, বর্তমানে বাংলাদেশে সরকার কর্তৃক ফ্রি অনলাইন কোর্স online free course তথা LEDP নামে প্রজেক্ট শুরু করছে। আর সেখানে বাংলাদেশের যেকেউ সম্পূর্ণ ফ্রীতে কোর্স করতে পারে। সেখানে ফ্রিল্যান্সিং এর সক প্রকার সেক্টর নিয়েই আলাদা আলাদা কোর্স করানো হয়। তবে এটি হলো জেলা কেন্দ্রিক। তাই আপনি যে জেলারই হোন না কেন, যদি আপনি ফ্রিল্যান্সিং কোর্স ইন বাংলাদেশ এ করতে চান, তাহলে LEDP তে রেজিস্ট্রেশন করে রাখুন। একটি নির্দিষ্ট সময় পর, এলইডিপি থেকে আপনাকে ফোন করে কনফার্ম করবে। এছাড়া অনেকে ফ্রিল্যান্সিং কোর্স online freelancing free course চট্টগ্রাম লিখেও ইন্টারনেটে সার্চ দিয়ে থাকে। তাদের জ্ঞাতার্থে জানিয়ে রাখি যে, সংযুক্ত কুমিল্লা সহ চট্টগ্রাম ও সকল জেলাতে বর্তমানে বাংলাদেশ সরকার সম্পূর্ণ ফ্রিতে ফ্রিল্যান্সিং এর সকল বিষয়ের উপর সকল সেক্টরে কোর্স করাচ্ছে। সুতরাং আপনি ফ্রিল্যান্সিং কোর্স চট্টগ্রাম বা চট্টগ্রামে ফ্রিল্যান্সিং কোর্স আলাদাভাবে সার্চ দিতে হবে না। যে জেলার অন্তর্ভুক্ত আপনি, ঠিক ঐ জেলাতেই আপনি রেজিস্ট্রেশন করুণ। আর ফ্রিতে ফ্রিল্যান্সিং কোর্স ইন বাংলাদেশে যুক্ত হোন। আশা করি আপনারা উল্লেখিত ব্যাপারটি বোঝতে সক্ষম হয়েছেন। আর যারা যারা বিনামূল্যে অনলাইনে ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণ শিখতে চাচ্ছেন, তাদের জন্য দুঃসংবাদ হলো, বাংলদেশে বিনামূল্যে অনলাইনে ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণ কেন্দ্র হয় নি। উল্লেখিত এলইডিপি হলো বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক সম্পূর্ণ ফ্রি তে অনলাইন ভিত্তিক একটি ফ্রিল্যান্সিং শেখার প্লাটফর্ম।

ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব নিয়ে শেষ কথা

ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব নিয়ে শেষ কথা
ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব নিয়ে শেষ কথা

ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব তা নিয়ে আশা করি ইতিমধ্যে আপনাদের নিকট ব্যাপারটি বেশ পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে। সুতরাং আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং জগতে একদম নতুন হয়ে থাকেন এবং ফ্রিল্যান্সিং শিখতে চান, তাহলে দয়া করে ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কিত আমাদের সকল আর্টিকেলগুলো অন্তত একবার পড়ুন। এতে করে আপনি অনলাইনে থাকা সকল ধরনের বিপদ পাঁদ থেকে রক্ষা পাবেন। যা একজন নতুন ফ্রিল্যান্সার হিসেবে জানা বেশ জরুরি।

আজকের আর্টিকেলে আমরা ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব তা জানার পাশাপাশি আপনি কিভাবে কোনো রকম টাকা পয়সা খরচ না করেই একজন অভিজ্ঞ ফ্রিল্যান্সার হয়ে উঠবেন, সে বিষয়ে বিস্তারিত বলা হয়েছে। এছাড়াও যদি আপনি একান্তই কোর্স করতে ইচ্ছুক হয়ে থাকেন, তাহলে কিভাবে আপনি জেলা ভিত্তিক সম্পূর্ণ ফ্রিতে ফ্রিল্যান্সিং কোর্স বাংলাদেশের মধ্যে অনলাইনে করবেন, সে সম্পর্কেও বিস্তারিত আলোচনা  করা হয়েছে। সর্বপরি, আশা করি আজকের আর্টিকেল তথা ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব সে সম্পর্কে জানতে পেরে বেশ চমৎকারভাবে উপকৃত হতে পেরেছেন।

ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব নিয়ে প্রশ্ন-উত্তর

অনলাইনে কাজ পেতে হলে আপনাকে কি কি করতে হবে?

বিশেষ করে যখন আপনি অনলাইনে কাজ করতে চাইবেন, তখন সর্বপ্রথম আপনার উচিত আপনার পছন্দের নির্দিষ্ট একটি সেক্টরে নিজেকে অত্যন্ত দক্ষ করে তোলা। এরপর কম্পিউটারের ব্যাসিক ও ইংলিশের ব্যাসিক কিছু শেখা। এগুলো থাকলে আপনি অনলাইনে কাজ পাবেন আশা করি।

ফ্রিল্যান্সিং কোন কাজের চাহিদা বেশি?

ব্যাসিকেলি, বর্তমানে ফ্রিল্যান্সিং এর প্রায় সবগুলো কাজেরই চাহিদা অনেক। তাই নিজেকে যেকোনো একটি টপিকে দক্ষ করে তুলুন এবং যথাযথ তাঁর সার্ভিস প্রোভাইড করে অনলাইন থেকে টাকা আয় Online income করুণ।

ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব সম্পর্কে আরো জানতে

BanglaTeach
E-HaqDigital Marketer at- BanglaTeach

E-Haq is the founder of BanglaTeach. He is expertise on Education, Health, Financial, Banking, Religious and so on.

3 thoughts on “ফ্রিল্যান্সিং কোথায় শিখব ২০২২”

Leave a Comment