প্রতিবেদন লেখার নিয়ম ও উদাহরণ – সঠিক গাইডলাইন

BanglaTeach
E-Haq
Digital Marketer at- BanglaTeach

E-Haq is the founder of BanglaTeach. He is expertise on Education, Health, Financial, Banking,...

Sharing is caring!

প্রতিবেদন লেখার নিয়ম
প্রতিবেদন লেখার নিয়ম

প্রতিবেদন লেখার নিয়ম জানা থাকা প্রতিটি ছাত্র-ছাত্রীসহ চাকুরিজীবীদেরও জানা প্রয়োজন। হোক সেটা আমাদের কর্ম ক্ষেত্র কিংবা শিক্ষানবিষ, সর্বপরি প্রায় সব জায়গায় প্রতিবেদন লিখার প্রয়োজন পড়ে। এটাতো হলো প্রাতিষ্ঠানিক কর্ম-কান্ডের ভিত্তিতে প্রতিবেদন লিখার গুরুত্বের দিকটি। এখন চলুন জানা যাক আরো কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ, যেগুলোতেও আপনাকে প্রতিবেদন এর সাহায্য নিতে হয়। ধরুণ আপনি ইউনিয়ন পরিষদের এরিয়ায় অবস্থান করছেন, সেখানে কোনো একটি কালবার্ট কিংবা রাস্তা মেরামত সহ নানা রকম সমস্যার দিকটি তুলে ধরে প্রশাসন থেকে আর্থিক সাহায্য চাচ্ছেন। এমতোবস্থায়ও কিন্তু আপনাকে একটি প্রতিবেদন সুন্দরভাবে লিখে উক্ত ঘটনাকে বর্ণনা করে প্রধানের নিকট প্রেরণ করতে হবে। আর সেই ক্ষেত্রে যদি আপনার প্রতিবেদন লেখার নিয়ম বা স্ট্রাকচার ঠিক না থাকে, এবং আপনি সম্পূর্ণ  প্রতিবেদনটি আপনার মন মতো করে লিখে জমা দিয়ে দেন, তাহলে কি থানা নির্বাহী অফিসার আপনার প্রতিবেদনটি গ্রহণ করবে? অথবা সেই প্রতিবেদনটির উপর ভিত্তি করে আর্থিক ফান্ড থেকে সহায়তা করবে? এর উত্তর হলো অবশ্যই না। কেননা আপনি প্রথমে প্রতিবেদন এর সঠিক স্ট্রাকচারটি ধরে রাখতে পারেন নি, এবং সেকেন্ডলি আপনার প্রতিবেদনে আপনি উক্ত জর্জরিত সমস্যাগুলো ভালোভাবে ফুঁটিয়ে তুলতে সক্ষম হোন নি। ফলাফল সরূপ, আপনার প্রতিবেদনটি জনাব রিজেক্ট করে দিয়েছে। ( চমৎকার কিছু শিক্ষামূলক বাণী সম্পর্কে জেনে নিন )

ঠিক একইভাবে আপনি যদি একজন ছাত্র হোন এবং কোনো একটি সমস্যাকে ফোকাসড করে প্রধান শিক্ষকে নিকট প্রতিবেদন লিখে সাহায্য চান, তাহলে অবশ্যই যুক্তিগত কারণ থাকলে প্রধান শিক্ষক সাহায্য করবে। কিন্তু আপনি যদি একজন শিক্ষার্থী হওয়া স্বর্ত্তেও সেই প্রতিবেদনটি লেখার নিয়ম কানুন ভঙ্গ করে লিখে তা জমা দিয়ে থাকেন, তাহলে সে ক্ষেত্রে সাহায্য পাওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। আর এই কারণেই একজন শিক্ষার্থীর ক্ষেত্রেও প্রতিবেদন লেখার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে জেনে রাখা ভালো।

শিক্ষার্থী, চাকুরিজীবী, জনসাধারণ সহ সবাইকে প্রতিবেদন লেখার নিয়ম সম্পর্কে জ্ঞাত থাকা যে কেমন গুরুত্বপূর্ণ, তা উপরের সংক্ষিপ্ত আলোচনা থেকেই বোঝা যায়। কিন্তু এখন আপনাদের মনে প্রশ্ন আসতে পারে যে, তাহলে প্রতিবেদন লেখার সঠিক নিয়ম কোনটি? কোন কোন জিনিসগুলো অনুসরণ করে একটি নিউবি শিক্ষার্থী বা যেকেউ খুব চমৎকারভাবে একটি প্রতিবেদন লিখতে পারে? হ্যাঁ, উক্ত বিষয়গুলোকে কেন্দ্র করেই আজকের আমাদের এই আর্টিকেলটি। প্রতিবেদনের একটি উদাহরণের মাধ্যমে আজকের টপিককে কাভার করার চেষ্টা করবো। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক প্রতিবেদন লেখার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে।

প্রতিবেদন লেখার সঠিক নিয়ম

প্রতিবেদন লেখার সঠিক নিয়ম

প্রতিবেদন লিখতে বেশ কয়েকটি জিনিস একজন লেখককে অবশ্যই লক্ষ্য রাখতে হবে। আর সেগুলো সহ যাবতীয় প্রতিবেদন নির্ভর তথ্যগুলো আজকের আর্টিকেলে কাভার করবো আশা করি। প্রথম যেহেতু আমরা কোনো ঘটনা বা যেকোনো একটি বিষয়কে কেন্দ্র করেই প্রতিবেদন লিখবো, সেহতু ঐ বিষয় বা ঘটনার সম্পূর্ণ ডিটেইলস জেনে নেওয়া জরুরি।

প্রতিটি প্রতিবেদন এর প্রধান ৩টি অংশ থাকে। যেগুলোকে ফলো করার মাধ্যমেই একটি সুন্দর উপাস্থাপনএবল প্রতিবেদন তৈরি করা যায়। সে প্রধান ৩টি অংশ হলো-

  • প্রতিবেদনের প্রারম্ভিক অংশ
  • প্রতিবেদনের প্রদান অংশ
  • প্রতিবেদনের পরিশিষ্ট

প্রথমে প্রতিবেদনের প্রারম্ভিক অংশ। আর এখানে প্রতিবেদনের প্রারম্ভিক অংশে থাকে লেখাকৃত প্রতিবেতনের শিরোনাম এবং একইসাথে প্রাপকের নাম, ঠিকানা, সুত্র ও বিষয়ের সংক্ষিপ্ত সার নির্দেশক কথা।

ঠিক প্রথমটির ন্যায় একইভাবে প্রতিবেদনে প্রদান অংশে থাকে সেই ঘটনাকৃত বিষয় সম্পর্কে ভুমিকা, মুল প্রতিবেদন, উপসংহার ও সুপারিশ।

সর্বশেষ প্রতিবেদনের পরিশিষ্টে থাকে তথ্য নির্দেশ, গ্রন্থ বিবরণী, কমিটির তালিকা ও আনুষঙ্গিক বিষয়াদি।

এখানে উল্লেখিত সমস্তকিছু হলো একটি আদর্শ প্রতিবেদন লেখার বাহ্যিক দৃষ্টান্ত। এছাড়াও প্র্রতিবেদন লিখার আরো বেশ কিছু নিয়ম নীতি রয়েছে। ক্রমান্বয়ে সেগুলো সম্পর্কেও জানা যাক।

প্রতিবেদন লেখার স্টেপ বা ধাপ

প্রতিবেদন লেখার স্টেপ বা ধাপ

প্রথমে জেনে নেই প্রতিবেদন লেখার ধাপগুলো সংক্ষিপ্তে। আর সেগুলো হলো-

প্রতিবেদনের শিরোনাম >> প্রতিবেদনের স্থান >> প্রতিবেদনের তারিখ >> বর্ণনা  >> সুপারিশ সমূহ >> প্রতিবেদক

প্রতিবেদনের শিরোনাম: যে ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আপনি প্রতিবেদনটি লিখতে চাচ্ছেন, সে ঘটনা রিলেটেড বা সম্পর্কিত একটি আকর্ষণীয় এবং সুন্দর শিরোনাম দিবেন।
প্রতিবেদনের স্থান: আমরা জানি, এই পৃথিবীতে যে কোনো যদি একটি ঘটনা ঘটে, তাহলে অবশ্যই সেটি কোনো একটি স্থানে ঘটে থাকে, আর এই জায়গায় সেই ঘটনাকৃত স্থানের নামটি হবে।
প্রতিবেদনের  তারিখ: সেই ঘটনাটি ঘটার সময়কে মূলত এখানে ইন্ডিকেট করা হচ্ছে। যেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিবেদনটি লেখা হচ্ছে, সে ঘটনা ঘটার তারিখটি এখানে বসাবেন।
বর্ণনা: এটি হলো প্রতিবেদনের মূল অংশ। এখানে আপনি সম্পূর্ণভাবে এবং সঠিক ও সাবলীল ভাবে পুরো বা সম্পূর্ণ ঘটনাটি বর্ণনা করবেন। অবশ্যই বর্ণানা করতে হবে সাবলীল ভাবে এবং লক্ষ্য রাখতে হবে ভাষাগত সার্বিক দিক দিয়ে। ঘটে যাওয়া ঘটনাটি চমৎকার ভাবে বর্ণনা করতে পারলে, প্রতিবেদনটি সার্থক হয়ে উঠবে।

সুপারিশ সমূহ: এই স্থানে বিশেষ করে এই সুপারিশ সংযোজন বা অ্যাড করবেন।

প্রতিবেদক: মূলত যারা নির্দিষ্ট বিষয়কে কেন্দ্র করে উক্ত প্রতিবেদনটি লেখছে বা লিখছে, এই স্থানে তাদের নাম এবং ঠিকনা বসবে। হতে পারে তা একজন কিংবা একাধিক জন।

মূলত উপরের স্টেপ বা ধাপগুলো অনুসরণ করে একজন লেখক সুন্দর করে চমৎকার একটি সুন্দর প্রতিবেদন লিখতে পারবে। তবে নবম-দশম শ্রেণীর বইগুলোতে আরো বেশ কিছু স্পেশাল নিয়ম কানুন রয়েছে প্রতিবেদন লিখার ক্ষেত্রে। আপনাদের ইচ্ছানুযায়ী ঐ নিয়মগুলোও অনুসরণ করতে পারেন। আলটিমেট, এতে করে আপনি সুন্দর একটি প্রতিবেদন রচনা করতে সক্ষম হবেন।

সঠিক নিয়মে কয়েকটি প্রতিবেদন নমুনা

প্রতিবেদন লেখার নিয়ম-১

শিরোনাম…………………………………………….

প্রতিবেদনের সারাংশ………………………………………………………….

ভূমিকা……………………………………………………………………

বিষয় বস্তু আলোচনা …………………………………………………………………….

…………………………………………………..…………………………………………………..………………………………

প্রতিবেদকের নাম:……………………..

তারিখ…………….

ঠিকানা………………. 

প্রতিবেদন লেখার নিয়ম-২

শিরোনাম

প্রতিবেদকের নাম

স্থান, তারিখ:…………………………………………………………………………………………….

…………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………

প্রতিবেদন লেখার নিয়ম-৩

সংবাদপত্রে প্রকাশের জন্য প্রেরণ করা পতিবেদনের নমুনা:

বরাবর

সম্পাদক

দৈনিক …………

বিষয় :………………………………………………………………

জনাব,

বিনীত নিবেদন এই যে, ……………………………………………………………………………….

………………………………………………..আশা করছি, প্রতিবেদনটি আপনার বহুল প্রচারিত পত্রিকায় প্রকাশ করে সংশ্লিষ্ট বিষয়টি কর্তৃপক্ষের নজরে আনতে সহায়তা করবেন।

শিরোনাম

প্রতিবেদেনের মূল অংশ……………………………………………………………………………..

………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………………

প্রতিবেদকের নাম ও ঠিকানা : ……………………………………

প্রতিবেদনের স্থান : ……………………………………

তারিখ : ……………………………………

প্রতিবেদন তৈরির সময় : ……………………………………

মূলত উপরের যেকোনো একটি উপায় অবলম্বণ করে যেকেউ খুব সুন্দর করে একটি প্রতিবেদন লিখতে পারে। এই ক্ষেত্রে উপরের যেকোনো একটিকে ফলো করলেই হবে। তবে যে নমুনাটি আপনাদের নিকট বেশ ভালো ও সুন্দর মনে হয়,সেটিকে অনুসরণ করে লিখতে পারেন।

প্রতিবেদন লেখার নিয়ম নিয়ে নমুনাচিত্র

প্রতিবেদন লেখার কয়েকটি নমুনচিত্র
প্রতিবেদন লেখার আরেকটি নমুনচিত্র

উপরে বেশ কয়েকটি প্রতিবেদন লেখার নিয়ম নিয়ে নমুনা দেওয়া হয়েছে। আশা করি উপরোক্ত তথ্যগুলো দ্ধারা পাঠক উপকৃত হবে। আমাদের মাঝে অনেকে আছে, যারা এখনো বিষয়টিকে বোঝতে পারি নি। তাদের জন্য নিম্নোক্ত ছবিগুলো বেশ উপকারক হবে। তাহলে চলুন দেখে নেওয়া যাক প্রতিবেদন লেখার নিয়ম নিয়ে বেশ কিছু নমুনা চিত্র।

মূলত এগুলোই ছিল একটি সুন্দর প্রতিবেদন লেখার গুরুত্বপূর্ণ বেশ কিছু নিয়ম কানুন। আশা করি ইমেইজ বা ছবিগুলো দেখে প্রতিবেদন লেখার উত্তম একটি ধারণা পেয়েছেন।

প্রতিবেদন লেখার প্রকারভেদ

প্রতিবেদন লেখার প্রকারভেদ

ঘটনা, বিষয়, স্থান অনেকগুলো স্পেসিপিক বিষয়কে কেন্দ্র করেই প্রতিবেদনের প্রকারভেদ করা হয়ে থাকে। আর যে বিষয়গুলোকে কেন্দ্র করে সাধারণত প্রাথমিকভাবে প্রতিবেদনের প্রকারভেদ করে থাকে, সেগুলো নিম্নে দেওয়া হলো-

  1. ঘটনা বা দুর্ঘটনা জনিত প্রতিবেদন
  2. তদন্ত ভিত্তিক প্রতিবেদন
  3. খেলাধুলা, বিজ্ঞান প্রযুক্তি , পরিবেশ বিষয়ক প্রতিবেদন
  4. সাক্ষাৎকার ভিত্তিক প্রতিবেদন
  5. রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক বিষয়ক প্রতিবেদন
  6. সম্পাদকীয় প্রতিবেদন ইত্যাদি

এখানে বেশ কয়েকটি বিষয়কে উল্লেখ করা হয়েছে। তবে এগুলো ছাড়াও আরো অনেকগুলো জিনিসকে ফোকাসড করে প্রতিবেদনের প্রকারভেদ করা হয়ে থাকে।

প্রতিবেদন লেখার নিয়ম নিয়ে শেষ কথা

প্রতিবেদন লেখার নিয়ম নিয়ে শেষ কথা

যেহেতু প্রতিবেদন হলো গুরুত্বপূর্ণ একটি টপিক যা সময়ের সাথে সাথে শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে চাকুরিজীবী সহ জনসাধারণদেরও কাজে লাগে। তাহলে বলা চলে যে, জীবনের বিভিন্ন পর্যায়ে নানা রকম কাজের উপর ভিত্তি করে মোটামোটি সবারই প্রতিবেদন লেখার নিয়ম সম্পর্কে জেনে রাখা ভালো। এতে করে যেকোনো মূহর্তে যদি কোনো গুরুত্বপূর্ণ কাজের জন্য প্রতিবেদন লেখার দরকার হয়, তখন অতিরিক্ত সময় ব্যায় না করেই সুন্দর ও চমৎকার একটি প্রতিবেদন লিখে ফেলা সম্ভব। আর যা শিক্ষার্থীসহ সবার জন্য শিক্ষণীয় একটি গুরুত্বপূর্ণ টপিক। সর্বশেষ, আশা করি আজকের আর্টিকেল তথা প্রতিবেদন লেখার নিয়ম সম্পর্কে জানতে পেরে উপকৃত হতে পেরেছেন।

প্রতিবেদন লেখার নিয়ম নিয়ে প্রশ্ন-উত্তর

প্রতিবেদন কাকে বলে?

সাধারণত প্রতিবেদন হলো কোনো একটি নির্দিষ্ট বিষয় বা বস্তুকে কেন্দ্র করে সে সম্পর্কে সকল ধরনের প্রয়োজনীয় তথ্য ও অনুসন্ধান ভিত্তিক বিবরণী। কোনো নির্দিষ্ট একটি ঘটনা, বিষয়, ইস্যু সম্পর্কে জ্ঞানভিত্তিক ও সুচিন্তিত বক্তব্য প্রদান করাকেই প্রতিবেদন বলে।

প্রতিবেদন কত প্রকার?

সাধারণত ক্ষেত্র ও বিষয় ভেদে প্রতিবেদনকে বিভিন্ন শ্রেণীতে নাম করণ করা হয়। এর সঠিক কোনো নির্দিষ্ট প্রকারভেদ নেই।

প্রতিবেদন লেখার নিয়ম সম্পর্কে আরো জানেতে

BanglaTeach
E-HaqDigital Marketer at- BanglaTeach

E-Haq is the founder of BanglaTeach. He is expertise on Education, Health, Financial, Banking, Religious and so on.

Leave a Comment