জিপি সিম 4g করার নিয়ম ২০২২

BanglaTeach
E-Haq
Digital Marketer at- BanglaTeach

E-Haq is the founder of BanglaTeach. He is expertise on Education, Health, Financial, Banking,...

Sharing is caring!

জিপি সিম 4g করার নিয়ম
জিপি সিম 4g করার নিয়ম

জিপি সিম 4g করার নিয়ম জানতে চেয়ে অনেক জিপি বা গ্রামীণফোন ব্যবহারকারী ইন্টারনেটে সার্চ দিয়ে থাকে। এর মধ্যে অনেকেই ইতিমধ্যে তাদের গ্রামীণ সিম কার্ডটি ৪জি তে রূপান্তর করেছে আবার কেউবা এখনো করে নি। আর সেই বিধায় আজকের আর্টিকেলে আমরা দেখবো, কিভাবে আপনি আপনার গ্রামীণসিমটিকে ৪জি তে রূপান্তর করতে পারেন এবং আপনার ব্যবহার করা জিপি সিম টি 4g কি-না। এবং আরো জানবো, জিপি 3g থেকে 4g তে সিম রিপ্লেস করলে কি কি সুবিধা ভোগ করতে পারবেন এবং জিপি ডাটা অফার উপভোগ করতে পারবেন। সুতরাং আলোচনা বিলম্বিত না করে চলুন তাহলে জানা যাক জিপি সিম 4g করার নিয়ম সম্পর্কে।

জিপি সিম 4g or 3g স্ট্যাটাস জানার নিয়ম

জিপি সিম 4g or 3g স্ট্যাটাস জানার নিয়ম

আপনার একটি জিপি সিমকে ৪জি-তে নেওয়ার পূর্বে প্রথমে জানতে হবে আপনার সিমটির বর্তমান স্ট্যাটাস কি? অর্থাৎ, গ্রামীণফোন সিমটি ৪জি কিংবা ৩জি তে রয়েছে, সে সম্পর্কে জেনে নিতে হবে। তাহলে এখন প্রশ্ন আসতে পারে কিভাবে আপনি আপনার সিমের বর্তমান স্ট্যাটাস দেখবেন? এটি আপনার মোবাইল ফোন দিয়েই দেখতে পারেন। কিভাবে? প্রথমে আপনাকে আপনার মোবাইল বা স্মার্টফোনের ডায়াল অপশানে চলে যেতে হবে। এরপর ডায়াল করুণ *১২১*৩২৩২# এবং ওকে চাপ দিন। উক্ত ডিজিট সঠিকভাবে উঠিয়ে ওকে দিলেই আপনি দেখতে পাবেন যে আপনার সিমটি বর্তমানে ৩জি নাকি ৪জি তে রয়েছে।

এছাড়াও আপনি আরেকভাবে জিপি সিমটি চেক দিতে পারেন। আর এটি হলো গ্রামীণফোনের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের হেল্প নিয়ে। এর জন্য প্রথমে আপনাকে এখানে ক্লিক করে তাদের অফিসিয়াল সাইটে চলে যেতে হবে। এরপর তাদের সাইটের নির্দেশনা মোতাবেক স্টেপগুলো ফলো করে জিপি সিমটি চেক দিতে পারেন।

মূলত উপরোক্ত এই দুই পদ্ধতির যেকোনো  একটি অ্যাপ্লাইয়ের মাধ্যমে আপনি আপনার জিপি সিমটির বর্তমান স্ট্যাটাস সম্পর্কে সঠিকভাবে জানতে পারবেন। সুতরাং এখন আপনি নিজেই আপনার জিপি সিমের স্ট্যাটাস দেখে নিন।

জিপি সিম 4g করার সঠিক নিয়ম

জিপি সিম 4g করার সঠিক নিয়ম

আপনি কয়েকভাবে জিপি সিম 4g করতে পারেন। এর মধ্যে কয়েকটি হলো জিপি সেন্টার – Grameenphone Center, জিপি এক্সপেস – GP Express, জিপি রিটেইলার – GP Retailer, আউটলেট – Retailer Outlet ও সার্ভিস টার্চ পয়েন্ট – Service Touch Point এ ভিজিট করেও গ্রামীনফোন সিম ৪জি করতে পারবেন। বর্তমানে সিম রিপ্লেসমেন্ট ফি মাত্র -২০০ টাকা। আর এই ফি হলো একটি সিমের জন্য। দুটি সিম হলে সেক্ষেত্রে হবে ৪০০ টাকা।

আপনি যদি সিমটিকে ৪জি তে রিপ্লেসমেন্ট করতে চান, তাহলে অবশ্যই এইক্ষেত্রে আপনাকে ভেরিফাই করে নিবে। কিভাবে? এই ক্ষেত্রে তাঁরা আপনার পুনরায় ফিঙ্গারপ্রিন্ট নিবে। আর এর মাধ্যমেই আপনাকে ভেরিফিকেশন করবে। সৌভাগ্য ক্রম যদি আপনার জিপি সিমটি “স্টার – STAR” এর আওতাভুক্ত হয়, তাহলে গ্রামীনফোন সেন্টার, গ্রামীনফোন এক্সপেস – Grameenphone Express, গ্রামীনফোন সেন্টার ফ্রেন্সাইড, জিপি অনলাইন সপ – GP online shop থেকেই আপনার জিপি সিমটিকে একদম ফ্রীতে ৩জি থেকে ৪জি – তে রিপ্লেস করে নিতে পারবেন। সেক্ষেত্রে আপনার এক টাকাও খরচ হবে না।

জিপি সিম 4g করার অফার

জিপি সিম 4g করার অফার

জিপি কর্তৃপক্ষ তাদের গ্রাহকদের সেবার বিষয়ে খুবই সেন্সেটিভ। আর সেই প্রেক্ষিতেই যদি কোনো গ্রাহক তাদের জিপি ২জি অথবা ৩জি সিমটিকে ৪জি সিমে ট্রান্সফার করে, তাহলে সাথে সাথেই সে ইউজার 1.5GB ইন্টারনেট পেয়ে যাবে সম্পূর্ণ ফ্রীতে। আর ‍উক্ত ইন্টারনেট তথা ডাটার অফার থাকবে মোট ৭দিন। তার সাথে সাথে আরো পাবেন 5GB 4G ইন্টারনেট। আর এই ৫জিবি ৪জি ইন্টারনেটও বিনামূল্যে। আর এই ৫জিবি ৪জি ইন্টারনেট তথা ডাটার মেয়াদ থাকবে সর্বমোট ৭দিন। যেদিন সিমটিকে ৪জি তে রূপান্তর করবেন, ঐদিন ব্যতিত ৬দিন। তবে এখানে একটি বিষয় লক্ষণীয় যে, যদি কোনো ইউজার পূর্বে এই ৩জি সিমটিকে ব্যবহার না করে থাকে এবং হঠাৎ সিমটিকে ৪জিতে রূপান্তর করে, তাহলে উক্ত অফারসমূহ সে ব্যবহারকারী পাবে না। এই ক্ষেত্রে এই বিষয়টিকে অবশ্যই মূল্যয়ন করতে হবে। এখন আপনি যে ৪জি ইন্টারনেট অফারটি পেলেন, তা কাজে লাগাতে হলে আপনাকে অবশ্যই ৪জি ইন্টারনেট কাভারেজ এরিয়ার মধ্যে থাকতে হবে। অন্যথায় উক্ত ডাটা ব্যবহার করতে আপনি অক্ষম। পাশাপাশি আরেকটি জিনিস হলো আপনার ব্যবহার করা হ্যান্ডসেটটি অবশ্যই ৪জি হতে হবে। সেই সাথে যেহেতু ইতিমধ্যে আপনার সিমটি ৪জি হয়েছে, সেহেতু সার্বিক সব কিছু মিলিয়ে আপনি উক্ত জিপি ৪জি সিম অফারটি পেতে পারেন এবং তা ব্যবহার করে উপকৃত হতে পারেন।

জিপি 4g অফারের শর্তাবলী

  • শুধুমাত্র সচল কিংবা অ্যাক্টিব জিপি ২জি অথবা ৩জি সিম থেকে ৪জি করলেই উক্ত  ডাটা বা ইন্টারনেট অফারটি পাওয়ার যোগ্য হবে। অন্যথায় নয়। আর উক্ত অফারটি ব্যবহার করতে হলে, অবশ্যই আপনাকে জিপি ৪জি ইন্টারনেটে এরিয়ায় থাকতে হবে।
  • ৩জি থেকে ৪জি সিমে রিপ্লেস করলে এই ৫জিবি ৪জি ইন্টারনেটের সাথে আরো ১.৫ জিবি ইন্টারনেট অফারও পাবেন। আর সেটি শুধু মাত্র ব্যবহারকারী একবার পাবেন। একাধিকবার পাবার কোনো রকম সুযোগ নেই।
  • উক্ত অফারগুলো অটো রিনিউয়াল করা যাবে না।
  • নির্দিষ্ট সময় অর্থাৎ সিম ৪জি করার দিন হতে মোট ৭দিনের মধ্যে ডাটা ব্যবহার করতে হবে।

উপরোক্ত শর্তগুলো মান্য করেই জিপি ৪জি সিমে ‍ইন্টারনেট অফারগুলো একজন ইউজার ব্যবহার করতে পারবে।

জিপি সিম 4g করার নিয়ম নিয়ে শেষ কথা

জিপি সিম 4g করার নিয়ম নিয়ে শেষ কথা

যদিও বর্তমানে খুব বেশি ৩জি সিম ব্যবহারকারী নেই। কিন্তু তারপরও অনেকে রয়েছে, যারা এতোদিন বাটন ফোন ব্যবহার করেছিল, কিন্তু এখন স্মার্টফোন নিয়েছে, আর তাদের জিপি সিমটিকে তারা ৪জি করতে চাচ্ছে। আর তাদের জন্য মূলত আজকের আমাদের এই আর্টিকেলটি। আশা করি আজকের আর্টিকেলটি পড়ার মাধ্যমে পাঠকগণ জিপি সিম 4g করার নিয়ম সম্পর্কে সম্মুখ একটি ধারণা পেয়েছে। আর সেই ধারণা থেকেই ব্যবহারকারী নিজে নিজেই এখন তার গ্রামীণফোন সিমটিকে ৪জি সিমে রিপ্লেস করতে পারবে। আর জিপি সিম ৪জি তে করলে যে ডাটা বা ইন্টারনেট অফার পাওয়ার কথা, সেটিও সে উপভোগ করতে পারবে। সুতরাং সর্বশেষ বলা চলে যে, আজকের আর্টিকেল দ্ধারা একজন ৩জি জিপি সিম ব্যবহারকারী খুব সহজেই ৪জি সিমে রূপান্তর করতে পারার নিয়ম সম্পর্কে জানতে পেরে উপকৃত হয়েছে।

জিপি সিম 4g করার নিয়ম নিয়ে প্রশ্ন-উত্তর

জিপি সিম ৪জি করার ডাটা অফার কি সবার জন্য প্রযোজ্য?

এর উত্তরটি হলো না। কেননা জিপি কর্তৃপক্ষ স্পষ্ট উল্লেখ করেছে যে, উক্ত অফার তাদের জন্যই প্রযোজ্য যারা জিপির অ্যাক্টিব ইউজার। অর্থাৎ এতোদিন ৩জি ব্যবহার করে আসছে কিন্তু এখন ৪জি তে কনভার্ট হয়েছে।

জিপি ইন্টারনেট চেক কোড কোনটি?

জিপি ইন্টারনেট ব্যালেন্স জানতে ডায়াল করুণ *১২১*১* । মূলত এটিই হলেঅ জিপি ইন্টারনেট চেক কোড। এই কোড ডায়াল করার মাধ্যমেই জানতে পারবেন আপনার জিপি সিম একাউন্টে কি পরিমাণ ডাটা রয়েছে।

জিপি সিম 4g করার নিয়ম সম্পর্কে আরো জানতে

BanglaTeach
E-HaqDigital Marketer at- BanglaTeach

E-Haq is the founder of BanglaTeach. He is expertise on Education, Health, Financial, Banking, Religious and so on.

Leave a Comment